শিরোনাম :
“প্রেসিডেন্ট পুলিশ মেডেল (পিপিএম)- সেবা” পেলেন অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোঃ ফরহাদ সরদার সাভারে বিএনসিসির সেন্ট্রাল ক্যাম্পিংয়ের সম্মিলিত কুচকাওয়াজ ও ডিসপ্লে অনুষ্ঠিত এম এম আমিনুল ইসলামকে আয়ারল্যান্ড প্রতিনিধি হিসাবে নিয়োগ দান  লক্ষীপুরে ডিবির জালে যৌন কর্মীসহ ৫জন আটক রক্তবন্ধু সমাজকল্যাণ সংগঠনের ৩য় প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উপলক্ষে অভিভাবক এওয়ার্ড ও গুণীজন সম্মাননা সাভার উপজেলা পরিষদ ঢাকা-১৯ এর এমপিকে সংবর্ধনা নওগাঁর পুলিশ সুপার”প্রেসিডেন্ট পুলিশ মেডেল” (পিপিএম-সেবা) প্রাপ্তি বড়াইগ্রামে জাতীয় পরিসংখ্যান দিবস পালিত  মাদক নিয়ে  ট্রেন চালক সহ গ্রেপ্তার ৫  ভোলায় রওশন আরা ও রাব্বী হত্যার বিচারের দাবীতে মানববন্ধন 
আমার জীবনের বড় শিক্ষক ছিলো বাবা -তিশা

আমার জীবনের বড় শিক্ষক ছিলো বাবা -তিশা

‘আমরা অজ্ঞ থাকব বলে বদ্ধপরিকর ছিলাম আর আমাদের শিক্ষকরা আমাদের মন পাল্টানোর চেষ্টা করে যাচ্ছিলেন’ উক্তিটি প্রায় সব মানুষের ক্ষেত্রেই প্রযোজ্য। কারণ শৈশবে শিক্ষাজীবন শুরুর পর থেকে এমন অভিজ্ঞতার মধ্য দিয়ে প্রায় সবাইকেই যেতে হয়। পৃথিবীতে যারা সফল কিংবা ব্যর্থ, তাদের প্রত্যেকের জীবনে শিক্ষকের গভীর প্রভাব রয়েছে। কারণ একজন শিক্ষক তার ছাত্র-ছাত্রীদের বরাবরই সঠিক পথে পরিচালিত করার চেষ্টা করেন। যাতে তার ছাত্র-ছাত্রীরা উজ্জ্বল ভবিষ্যৎ গড়তে পারেন। সোমবার বিশ্ব শিক্ষক দিবস। শিক্ষকদের অবদান স্মরণ করে তাদের শ্রদ্ধা জানাতে বিশ্বের বিভিন্ন দেশে দিনটি পালিত হয়। জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারপ্রাপ্ত অভিনেত্রী নুসরাত ইমরোজ তিশা। রাজধানীর ভিকারুননিসা নূন স্কুল অ্যান্ড কলেজে পড়াশোনা করেছেন তিনি। এই প্রতিষ্ঠানের কয়েকজন শিক্ষক তার জীবনে অবদান রেখেছেন বলে জানিয়েছেন তিশা। সংবাদমাধ্যেমের সঙ্গে আলাপকালে তিশা বলেন, ‘জীবনে অনেক শিক্ষকের সান্নিধ্য পেয়েছি। ভিকারুননিসায় আমার প্রিয় শিক্ষক ছিলেন হামিদ আলী। তিনি আমাদের হাতে-কলমে শিক্ষা দেন নাই। কিন্তু যে প্রসিডিউরের মধ্য দিয়ে শিক্ষা দিয়েছেন, তা এখনো জীবনে কাজে লাগছে।’একই প্রতিষ্ঠানের আরেকজন শিক্ষকের কথা বিশেষভাবে স্মরণ করেছেন তিশা। তিশা বলেন, ‘আরেকজন শিক্ষকের কথা না বললেই নয়। তিনি হলেন জামানারা আপা। ভিকারুননিসায় পড়তে গিয়ে তাকে পেয়েছি। আপা আমাদের অর্থনীতি পড়াতেন। জামানারা আপা আমাকে অনেক বেশি সাহায্য করেছেন। আমার বাবা মারা যাওয়ার পর স্কুল থেকে আমাকে যতটুকু সাপোর্ট করা হয়েছে, তার সবগুলোতে তার অবদান ছিলো। শ্রদ্ধার সঙ্গে আপাকে স্মরণ করছি। পৃথিবীর সকল শিক্ষকদের জন্য শ্রদ্ধা ও ভালোবাসা।’ অ্যাকাডেমিক শিক্ষাই শেষ কথা নয়Ñ একথা গভীরভাবে বিশ্বাস করেন তিশা। পরিবার থেকেই মানুষ জীবনের বড় শিক্ষা গ্রহণ করে। তাই তিশার জীবনের বড় শিক্ষক তার বাবা-মা। তিশা বলেন, ‘শিক্ষা মানুষের পুরো জীবনের বিষয়। আমার জীবনের শিক্ষক আমার বাবা। তিনি আজ বেঁচে নেই। তার শিক্ষাই আমাকে আজকের অবস্থানে নিয়ে এসেছে। তার শিক্ষা এখনো আমাকে স্থির থাকতে সাহায্য করছে। জীবনের দ্বিতীয় শিক্ষক আমার মা। আমার বাবা-মা আমার জীবনের মেন্টর, টিচার।’

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published.




কপিরাইট © ২০২১ || দি ডেইলি আজকের আলোকিত সকাল - সর্বসত্ত্ব সংরক্ষিত