শিরোনাম :
দিঘলিয়া উপজেলা শেখ রাসেল মিনি স্টেডিয়ামের ভিত্তি প্রস্তর স্থাপনে ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী  নওগাঁয় মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তর এর অভিযানে ৬কেজি গাঁজাসহ আটক-১ নাহিদুজ্জামান বাবুর স্বীকারোক্তি মূলক জবানবন্দি  সিরাজগঞ্জে গরু চুরিতে বাধা দেওয়ায় পিকআপের চাপায় গৃহবধু হত্যা,ডাকাত দলের ৪ পলাতক আসামী গ্রেফতার বড়াইগ্রামে পাটোয়ারী কোয়ালিটি এডুকেয়ার ইনস্টিটিউটে বার্ষিক ক্রীড়া প্রতিযোগীতা অনুষ্টিত পূর্বধলায় সরকারী চাকুরীজীবী হওয়া সত্বেও করেন সাংবাদিকতা খুলনায় মাসব্যাপী একুশে বইমেলা শুরু ,বই ছাড়া জ্ঞান অর্জন করা যায় না -সিটি মেয়র বিভাগীয় সমাবেশ উপলক্ষে ঠাকুরগাঁওয়ে বিএনপির বর্ধিত সভা পাতাল রেল নির্মাণ কাজের উদ্বোধন রোহিঙ্গা প্রসঙ্গে ‘বিশ্ব হাত গুটিয়ে বসে থাকলে আবারো ২০১৭ সালের পুনরাবৃত্তি হবে :জাতিসংঘ
আশুলিয়ার রাস্তায় ভয়ংকর মাদক ডেভিলস ব্রেথ শয়তানের  নিঃশ্বাস 

আশুলিয়ার রাস্তায় ভয়ংকর মাদক ডেভিলস ব্রেথ শয়তানের  নিঃশ্বাস 

বিপ্লব শেখ :
ভয়ংকর মাদক স্কোপোলামিন। অপরাধ জগতে যার পরিচিত ‘ডেভিলস ব্রেথ’ বা ‘শয়তানের শ্বাস’ নামে।  এই ভয়ংকর মাদক এখন দেশের সংঘবদ্ধ অপরাধী চক্রের হাতে। তাদের শিকার হয়ে স্বেচ্ছায় নিজেদের গহনা ও মূল্যবান মালামালসহ টাকা পয়সা হারাতে হচ্ছে সাধারণ মানুষকে।
আশুলিয়ায় শিল্পাঞ্চল  এবং জনবহুল ডিইপিজেড এলাকা ও শহরেও এদের দৌরাত্ম চরম হারে বৃদ্ধি পাওয়ায় উদ্বিগ্ন
এসব জনবহুল এলাকার সাধারণ মানুষ গুলো।
আশুলিয়ার জামগড়া এলাকার স্থানীয় বাসিন্দা ইন্জিনিয়ার মোঃ মাজহারুল ইসলাম মুন্সি জানান, আমি আমার বড় মেয়ে ইকরা(০৭)নিয়ে প্রতিদিনের ন্যায় আজও প্রাইভেট পড়তে দিয়ে আসি আবার নিয়েও আসি, কিন্তু আজকে জরুরী কাজ থাকায় মেয়েকে আনতে যেতে পারিনি, তাই প্রাইভেট শেষে  মেয়ে একাই
 আসার পথে (১১’জানুয়ারি)২০২৩ ইং বুধবার বিকেল আনুমানিক ৪টা ৩০মিঃ লাল ড্রেস পড়া মেয়ের সাথে থাকা এই মহিলা আমার মেয়েকে (শয়তানের শ্বাস) মেডিসিন দিয়ে ভুলিয়ে পাশের মহল্লার একটি গলিতে নিয়ে গিয়ে তার অলংকার নিয়ে তাকে ফেলে চলে যায়। পরে আমার  পরিচিত একজন ব্যাক্তি আমার মেয়ে ইকরাকে কান্নাকাটি অবস্থায় দেখতে পেয়ে আমার বাসায় নিয়ে আসেন। পরে আমরা চাইল্ড হ্যাভেন একাডেমির সিসি টিভির ফুটেজ দেখে এই লাল কালো থ্রি-পিছ পড়া লম্বা মহিলাকে শনাক্ত করতে পেরেছি।
   তিনি আরও বলেন,
এ চক্র গুলো কৌশলে তাদের কাছে থাকা কাগজে মোড়ানো নেশাদ্রব্য নাকের কাছে নিয়ে ভিক্টিমকে স্মৃতিভ্রম করে।
যার কারণে তাদের কথামতো ইকরার মতো আরও অনেক ভুক্তভোগীরা রয়েছে যারা নিজেই প্রতারকদের হাতে খুলে দেন তার গলায় থাকা স্বর্ণের চেন, কানের দুল, হাতের আংটি। এসব নিয়ে দ্রুতই  সটকে পরে প্রতারকরা।
তারা বুঝতেই পারেননি যে, নিজের হাতে স্বেচ্ছায় ওদের কাছে কেনো তুলে দিলেন তার বা তাদের এসব মূল্যবান জিনিসপত্র।
ভুক্তভোগী ইকরার বাবা মাজহারুল ইসলাম মুন্সি-সহ
 আশুলিয়ার সাধারণ মানুষ বলছেন, তারা সম্প্রতি এমন বেশ কিছু ঘটনার কথা জানতে পেরেছেন। তাই এবিষয়ে তারা বেশ শংকিত মনে করছেন।
অপরাধ বিশ্লেষকদের ভাষ্য অনুযায়ী, মূলত
 ভয়ংকর  শয়তানের শ্বাস বা ডেভিলস ব্রেথ হিসেবে পরিচিত পাওয়া এই মাদক মস্তিস্কের সিদ্ধান্ত গ্রহণের ক্ষমতা ক্ষনিকের জন্য নষ্ট করে দেয়। অন্যের দেয়া আদেশকে যান্ত্রিকভাবে অনুসরণ করতে বাধ্য করা হয় স্বেচ্ছায়। তারা নিজে কিছু চিন্তা করতে পারেন না শুধু সামনের লোক যা বলবে তাই করবে রোবটের মত । ফলে দুর্বৃত্তরা লোকজনকে সর্বস্বান্ত করতে মূল অস্ত্র হিসেবে ব্যবহার করছে এই ভয়ংকর মাদক স্কোপোলামিন। অপরাধ জগতে যার পরিচিত ‘ডেভিলস ব্রেথ’ বা ‘শয়তানের শ্বাস’ নামে পরিচিত।   এই ধরনের অপরাধমূলক চক্রদেরকে ধরে চিহ্নিত করে, আইনের আওতায় এনে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দেওয়ার জন্য,  বাংলাদেশ আইন শৃঙ্খলা বাহিনীর সুদৃষ্টি কামনা করছেন, ইঞ্জিনিয়ার মোঃ মাজহারুল ইসলাম মুন্সিসহ আশুলিয়ায় বসবাসরত মানুষ গুলো।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published.




কপিরাইট © ২০২১ || দি ডেইলি আজকের আলোকিত সকাল - সর্বসত্ত্ব সংরক্ষিত