শিরোনাম :
দিঘলিয়া উপজেলা শেখ রাসেল মিনি স্টেডিয়ামের ভিত্তি প্রস্তর স্থাপনে ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী  নওগাঁয় মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তর এর অভিযানে ৬কেজি গাঁজাসহ আটক-১ নাহিদুজ্জামান বাবুর স্বীকারোক্তি মূলক জবানবন্দি  সিরাজগঞ্জে গরু চুরিতে বাধা দেওয়ায় পিকআপের চাপায় গৃহবধু হত্যা,ডাকাত দলের ৪ পলাতক আসামী গ্রেফতার বড়াইগ্রামে পাটোয়ারী কোয়ালিটি এডুকেয়ার ইনস্টিটিউটে বার্ষিক ক্রীড়া প্রতিযোগীতা অনুষ্টিত পূর্বধলায় সরকারী চাকুরীজীবী হওয়া সত্বেও করেন সাংবাদিকতা খুলনায় মাসব্যাপী একুশে বইমেলা শুরু ,বই ছাড়া জ্ঞান অর্জন করা যায় না -সিটি মেয়র বিভাগীয় সমাবেশ উপলক্ষে ঠাকুরগাঁওয়ে বিএনপির বর্ধিত সভা পাতাল রেল নির্মাণ কাজের উদ্বোধন রোহিঙ্গা প্রসঙ্গে ‘বিশ্ব হাত গুটিয়ে বসে থাকলে আবারো ২০১৭ সালের পুনরাবৃত্তি হবে :জাতিসংঘ
ঢাকা আন্তর্জাতিক বাণিজ্য মেলা পরিদর্শন করলেন স্পিকার ড. শিরিন শারমীন চৌধুরী 

ঢাকা আন্তর্জাতিক বাণিজ্য মেলা পরিদর্শন করলেন স্পিকার ড. শিরিন শারমীন চৌধুরী 

মাহবুব আলম প্রিয়:
পূর্বাচলের স্থায়ী প্যাভিলিয়নের ২য় আসরের ৮ম দিন রবিবার দুপুরে পুরো মেলা ঘুরে দেখলেন জাতীয় সংসদের স্পিকার ড. শিরিন শারমীন চৌধুরী। এ সময় মেলায় আয়োজনে সন্তোষ প্রকাশ করেছেন । পরিবারের সদস্যদের নিয়ে  স্টল ঘুরে কেনাকাটাও করেছেন তিনি। এদিকে সরকারী ছুটির দিন গত শুক্রবার ও শনিবার বিপুল পরিমাণ দর্শনার্থী থাকলেও রবিবার ফের কমে গেছে মেলায় আগত দর্শনার্থীর সংখ্যা। ফলে বেচাকেনা হয়নি খুব একটা।
রোববার (৮ জানুয়ারি) দুপুর থেকে বিকাল পর্যন্ত মেলার ঘুরে দেখা যায়, দুপুরে জাতীয় সংসদের স্পিকার ড. শিরিন শারমীন চৌধুরী স্ব পরিবারে মেলা পরিদর্শনের ফলে নিরাপত্তাজনিত থমথমে পরিবেশ বিরাজ করে। মেলায় দায়িত্বরত আইন শৃঙ্খলা বাহীনি ছাড়াও রূপগঞ্জ থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এএফএম সায়েদের নেতৃত্বে অতিরিক্ত সদস্যার স্পিকারকে  নিরাপত্তা দিতে কাজ করতে দেখা গেছে। মেলার পরিচালক ও রপ্তানি উন্নয়ন ব্যুরোর সচীব ইফতেখার আহমেদ চৌধুরী বলেন,  পূর্বাচলে স্থায়ী এক্সিবিশন সেন্টারে (বিবিসিএফইসি) স্পিকার  মহোদয় ও তাঁর পরিবারের সদস্যরা ঘুরে দেখেছেন। প্রথমে বঙ্গবন্ধু গ্যালারী পরে  মেলার স্টল থেকে কুটির শিল্পের কিছু তৈজস ও শীতের কাপড়, কাঞ্চনের তাঁতীদের তৈরী শাল ক্রয় করেন। এ সময় মেলার সার্বিক পরিবেশ দেখে সন্তুষ প্রকাশ করেন তিনি।
এদিকে বাণিজ্যমেলা উদ্বোধনের পর শুরু থেকে স্টল প্রস্তুতি নিয়ে দেরী ও অব্যাহত শৈত্য প্রবাহের কারনে তেমন জমে ওঠেনি। তবে গত শুক্রবার ও শনিবার মেলায় প্রায় ৩ লাখের অধিক দর্শনার্থী হয়েছিলো। বেচাকেনাও হয়েছে।  কিন্তু রবিবার ফের কমে গেছে দর্শনার্থীর সংখ্যা।
কথা হয়, মেলায় স্বেচ্ছাসেবী হিসেবে দায়িত্বরত ও রূপগঞ্জ ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সভাপতি আব্দুল আজিজের সঙ্গে।  তিনি বলেন, মেলার সরকারী ছুটির দিনে জমে বেশি। আর সাধারণ দিনে কিছুটা কম। তবে বিকাল হলে বাড়তে থাকে দর্শনার্থী।  এবার করোনার বিধি নিষেধ না থাকায় গতবারের তুলনায় দর্শনার্থী হবে বহুগুন বেশি।
মেলার আগত দর্শনার্থী কাঞ্চনের কেন্দুয়ারটেক এলাকার বাসিন্দা  রুপা শিকদার বলেন,  পূর্বাচলে দ্বিতীয়বারের মতো বাণিজ্যমেলা শুরু হলো। প্রথমবার যখন এখানে বাণিজ্যমেলা হয়, করোনার বিধিনিষেধের কারণে তেমন না জমলেও এবার জমে উঠতে শুরু করেছে। তবে মেলার সব পন্যের দাম রাখা হচ্ছে বেশি। যা সাধারণ ক্রেতার জন্য স্বস্তিদায়ক নয়।
এছাড়াও এবার মেলায় সাধারণ, প্রিমিয়াম, সংরক্ষিত, ফুড স্টল ও রেস্তোরসহ ১৩ ক্যাটাগরিতে স্টল রয়েছে। এছাড়া মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাস জানতে রয়েছে বঙ্গবন্ধু প্যাভিলিয়ন। এবার দেশি-বিদেশি মিলে মেলায় মোট ৩৫১টি স্টল, প্যাভিলিয়ন, মিনি প্যাভিলিয়ন রয়েছে। গতবার এই সংখ্যা ছিল ২২৫টি।
দেশি প্রতিষ্ঠান ছাড়াও সিঙ্গাপুর, ইন্দোনেশিয়া, কোরিয়া, ভারতসহ ১০টি বিদেশি রাষ্ট্রের ১৭টি প্রতিষ্ঠান মেলায় অংশ নিয়েছে। এছাড়া গতবার শিশুপার্ক ছিল না, এবার মিনি শিশুপার্ক রয়েছে। যদিও এটি বেসরকারি উদ্যোগে।
এদিকে ট্রাফিকের দায়িত্বরত এটিএসআই নাজমুল ইসলাম বলেন, মেলাকে ঘিরে ঢাকা বাইপাস সড়কের যানজট তৈরি হয়। এসব নিয়ন্ত্রণ করতে ব্যস্ত সময় পার করছি। রাজধানী থেকে আসা দর্শনার্থীরা সহজে যাতায়াত করতে পারছেন কিন্তু ঢাকা বাইপাসে কাজ চলমান থাকায় কিছুটা সমস্যা তৈরী হচ্ছে।  আর বাণিজ্য মেলার অবস্থান এ সড়কের পাশেই।
মেলায় প্রবেশদ্বার ইজারাদার  কর্তৃপক্ষ মাসুম চৌধুরী অপু বলেন,  মেলা উপলক্ষে কুড়িল থেকে মেলার ভেন্যু পর্যন্ত যাত্রীদের আনা-নেওয়ার জন্য ৫০টি শাটল বাস চালু করেছে বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন করপোরেশন। বাসের ভাড়া যাত্রীপ্রতি ৩৫ টাকা নির্ধারণ করা হয়েছে। বিকাশের মাধ্যমে ভাড়া পরিশোধ করলে যাত্রীরা ৫০ শতাংশ ছাড়ও পাবেন।
এবার মেলায় প্রাপ্তবয়স্কদের জন্য ৪০ টাকা এবং অপ্রাপ্তবয়স্কদের জন্য ২০ টাকা প্রবেশ মূল্য নির্ধারণ করা হয়েছে। তবে বীর মুক্তিযোদ্ধা ও প্রতিবন্ধীদের জন্য প্রবেশ মূল্য ফ্রি।
মেলা খোলা থাকবে সকাল ১০টা থেকে রাত ৯টা পর্যন্ত। তবে ছুটির দিনে এক ঘণ্টা বাড়িয়ে সকাল ১০টা থেকে রাত ১০টা পর্যন্ত খোলা থাকবে। এছাড়া মেলায় প্রায় ১ হাজার গাড়ি পার্কিংয়ের ব্যবস্থা রাখা রয়েছে।
এসব বিষয়ে রূপগঞ্জ থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ওসি এএফএম সায়েদ বলেন,  মেলায় আগত দর্শনার্থীদের  ও  আশপাশের নিরাপত্তায় মেলার নিয়োজিত রয়েছে প্রায় ৭ শতাধিক পুলিশ  র‌্যাবসহ সংশ্লিষ্ট আইনশৃঙ্খলা বাহিনীরা।
মেলায় নারায়ণগঞ্জ জেলা পুলিশের কন্ট্রোল রুম স্থাপন করা হয়েছে।  নিয়োজিত পুলিশ সদস্যরা দর্শনার্থীদের সার্বিক নিরাপত্তা বিষয় দেখভাল করবেন। সাদা পোশাকেও বিশেষ টিম নিরাপত্তায় কাজ শুরু করেছেন। ফলে নিরাপদ পরিবেশে এ মেলা পুরোপুরি জমে উঠবে।
সূত্র জানায়, , গতবছর মেলায় ২০০ কোটি টাকা মূল্যের পণ্য রপ্তানির স্পট আদেশ পাওয়া গিয়েছিল। প্রধান রপ্তানি পণ্য তৈরি পোশাকের পাশাপাশি আরও ১০টি পণ্য রপ্তানি বাড়ানোর বিশেষ উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। এবার আরো বেশি পাবার আশা করছেন মেলার আয়োজকরা।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published.




কপিরাইট © ২০২১ || দি ডেইলি আজকের আলোকিত সকাল - সর্বসত্ত্ব সংরক্ষিত