শিরোনাম :
দিঘলিয়ায় ভূমি দস্যুদের অপতৎপরতা চরমে, আদালতের নিষেধাজ্ঞা উপেক্ষা করে  ঘর নির্মাণের অভিযোগ

দিঘলিয়ায় ভূমি দস্যুদের অপতৎপরতা চরমে, আদালতের নিষেধাজ্ঞা উপেক্ষা করে  ঘর নির্মাণের অভিযোগ

সৈয়দ জাহিদুজ্জামান:
দিঘলিয়া উপজেলার পথেরবাজার  আদালত ঘোষিত ১৪৪ ধারা উপেক্ষা করে পাকা ভবন নির্মাণের অভিযোগ পাওয়া গেছে। বিষয়টি নিয়ে আদালতে মামলা চলমান থাকা অবস্থায় আদালতের নিষেধাজ্ঞা থাকা সত্ত্বেও প্রতিপক্ষ  বৃহস্পতিবার রাতে  পাকা ভবন নির্মাণ করছে করছে। নেপথ্যে রয়েছে বড় ধরণের ভূমি দস্যু সিন্ডকেট বলে জানা গেছে। বিষয়টি নিয়ে এলাকায় দু’ পক্ষের মধ্যে চরম উত্তেজনা বিরাজ করছে। যেকোনো মুহূর্তে আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতির অবনতি ঘটতে পারে এমনটাই আশঙ্খা করছেন এলাকাবাসী।
বিভিন্ন সূত্র থেকে জানা যায় , উপজেলার সেনহাটী মৌজার এস এ খতিয়ান নং-৪৯, দাগ নং- ২৯৪৮, ২৯৬১,২৯৫৪,২৯৬১ মোট জমির পরিমাণ ১.২৫৪০ একর সম্পত্তি নিয়ে গত ১৭ মার্চ  খুলনার অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে এ এফ এম ইমরুল ইসলাম বাদী হয়ে শামসুল হক, মোঃ শরিফুল ইসলাম, মোঃ রফিকুল ইসলাম, মোঃ তরিকুল ইসলাম ও রবিউল ইসলাম রবির বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেন।
আদালত শুনানী শেষে ২১ মার্চ উক্ত জমির ওপর ১৪৪ ধারা জারি করেন এবং স্থানীয় থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তাকে স্থিতি অবস্থা বজায় রাখার নির্দেশ দেন। পুলিশ  দু’পক্ষকে  শুক্রবার পর্যন্ত জমিতে কোন কিছু না করার নির্দেশ দেন। কিন্তু থানা পুলিশের নির্দেশনাকে অমান্য করে কোর্টের দেওয়া ১৪৪ ধারা অবমাননা করে প্রতিপক্ষ বৃহস্পতিবার রাতে জোর পূর্বক জমিটিতে টিন সেড ঘর নির্মাণ করেন । এ ঘটনাকে কেন্দ্র করে যে কোনো মুহূর্তে আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতির অবনতির সম্ভাবনা রয়েছে বলে এলাকাবাসী এ প্রতিবেদককে জানান।
এক সূত্র থেকে জানা গেছে, এলাকার একটা প্রভাবশালী ভূমি দস্যু সিন্ডিকেট পর্দার আড়ালে থেকে এলাকায় আইন সৃঙ্খলার অবনতি ঘটানোর নানা অপতৎপরতা চালাচ্ছে বলে এলাকাবসী সূত্রে জানা গেছে।
দিঘলিয়া থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ বাবুল আক্তার এ প্রতিবেদককে বলেন , জমিজমা সংক্রান্ত অনেক অভিযোগ রয়েছে। আদালতে মামলা চলাকালীন নালিশী জমিতে ঘর নির্মাণ করা আইন বহির্ভূত কাজ। নির্দিষ্ট  অভিযোগ পেলে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। আদালত থেকে ১৪৪ ধারা জারীর বিষয়টি তিনি অবগত নন বলে জানান।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




কপিরাইট © ২০২১ || দি ডেইলি আজকের আলোকিত সকাল - সর্বসত্ত্ব সংরক্ষিত