শিরোনাম :
কেন্দুয়া কৈজানি নদীতে ঝাঁপ দেয়া হালিমের লাশ উদ্ধার খুলনায় ট্রাক-কাভার্ডভ্যান মুখোমুখি সংঘর্ষে চালক নিহত শাহজাদপুরে পিপিভি নারীকে চাকরিতে পূর্ণবহালের দাবীতে মানববন্ধন ও সমাবেশ  শেরপুরে বন বিভাগের রেঞ্জ কর্মকর্তার বিচার দাবিতে মানববন্ধন সালথায় পেঁয়াজের আড়তে ভোক্তা অধিদপ্তরের তদারকি দিঘলিয়ায় সাবেক প্রেসিডেন্ট হুসাইন মুহাম্মদ এরশাদের ৫ম মৃত্যু বার্ষিকী পালন মিরপুর বিআরটিএ কার্যালয়ে অভিযান ; ২ দালালের সাজা কেন্দুয়ায় ফুটবল প্রীতিম্যাচ অনুষ্ঠিত কেন্দুয়ায় বাবার বাড়ি পুড়িয়ে দিল ছেলে ধীরগতিতে কমছে যমুনার পানি বানভাসির মধ্যে বিশুদ্ধ পানিসহ তীব্র খাদ্য সংকট
নওগাঁয় পূর্বশত্রুতার জের ধরে প্রায় দেড়-বিঘা জমির ধান ঘাসমারা ঔষধ দিয়ে বিনষ্ট

নওগাঁয় পূর্বশত্রুতার জের ধরে প্রায় দেড়-বিঘা জমির ধান ঘাসমারা ঔষধ দিয়ে বিনষ্ট

এ.বি.এম.হাবিব:
নওগাঁ সদর উপজেলার হাঁসাইগাড়ী ইউনিয়নের কাটখৈর ভুতুলিয়া মধ্যে পাড়ায় পূর্ব শত্রুতার জের ধরে, কৃষক নাসিরে প্রায় দেড় বিঘা জমিতে ঘাসমারা ঔষধ ছিটিয়ে সম্পূর্ন ধান বিনষ্ট করেছে। অসহায় কৃষকের আহাজারিতে এলাকার আকাশ ভারী হয়ে গেছে।
সরেজমিনে গিয়ে জানা যায়, কৃষক নাসিরের সাথে পার্শবর্তী আনিছার ও তার দুই ছেলে,রাজ্জাক ও হাফিজুর সাথে জমি-জমা সংক্রান্ত বহু দিন থেকে বিরোধ চলে আসছে। এ বিষয়ে নওগাঁ আদালতে মামলাও আছে। বহু কষ্টে কৃষক নাসির তার পৈতৃক সুত্রে প্রাপ্ত  ৯কাঠা ও অন্যের জমি বর্গা নেওয়া ১বিঘা জমিতে ধান চাষ করে,সার ঔষধ দিয়ে আসছে। ১৪/১৫দিনের মধ্যেই ধান কেটে ঘরে নিয়ে আসার জন্য চিন্তা-ভাবনা করছিল। তার স্বপ্নে গুড়া-বালি ছিটিয়ে দিয়েছে এই ৩জন ঘাতক। সর্বশান্ত করেছে তাকে সহ তার পরিবারকে।
কৃষক নাসির আহাজারিরত অবস্থায় সাংবাদিকদের জানান, গত (২৬ এপ্রিল) শুক্রবার ভোরে ফজরের নামাজ শেষে বাড়ী ফেরার পথে, পাশাপাশি বাড়ী হওয়ায়, ঔই তিনজনকে ঔষধ ছিটানো মেশিন ও ঢোক নিয়ে তাদের বাড়ীতে যেতে দেখেছে। পরবর্তীতে সকালে প্রতিদিনের মত ধানের ক্ষেতে ধান দেখতে গিয়ে, সে দেখতে পায়,ধানের গাছ গুলো আঁউড়িয়ে গেছে। বেলা বারার সাথে সাথে ধানের গাছগুলোও শুকিয়ে যাচ্ছে। এরপর গ্রামের সকল গন্য-মান্য লোকজন এসে সিয়র হয়,ঘাসমারা ঔষধেই ধান গুলো নষ্ট করা হয়েছে। স্থানীয়রা দাবী করে বলেন,যতই শত্রুতা থাকুক এমন অমানবিক, জঘন্য কাজ করা উচিত নয় অপরাধীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবী জানান।
ভুক্তভোগী কৃষক নাসির জানান, তার এতোবড় ক্ষ ক্ষতি করায়,তার পরিবার নিয়ে এ বছরে অনাহারে অর্ধহারে থাকতে হবে। তিনি বলেন,আনিছার,রাজ্জাক ও হাফিজুর এরা তিনজন কয়েক দিন থেকে তাকেসহ তার পরিবারের মহিলাদেরকে কয়েকদিন ধরে শাসন,গর্জন করে আসছে। এবং সাড়াবছর না খেয়ে রাখবে বলেও একাধিক বার হুমকি দিয়ে আসছে। তারা ছাড়া এ গ্রামে এমন নিষ্ঠুর কাজ আর কেহই করতে পারে না। তিনি প্রশাসনের প্রতি আকুল আবেদন জানিয়ে বলেন,সঠিক তদন্ত করে,অপরাধীদের আইনের আওতায় এনে শাস্তির দাবী জানান।
অনুসন্ধানে জানা যায়, নওগাঁ আদালতে আনিছার,রাজ্জাক ও হাফিজুরের বিরুদ্ধে কয়েকটি মামলা চলমান রয়েছে। যার মধ্যে মোকাম অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিষ্ট্রেট আদালত, নওগাঁয় ২৫৪/২৪ নওগাঁ, মোকাম অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিষ্ট্রেট আদালত, নওগাঁয় ২২৭/২৪ নওগাঁ, এবং একটি নারী শিশু যার মামলা নং- ৭২/২৪ নওগাঁ।,মামলা চলমান রয়েছে। এলাকাবাসীরা জানান,এরা তিনজন এই গ্রামের সকলের অশান্তি মুলক কার্যক্রম করে আসছে বহুদিন থেকে। সরকারী দলের নাম ভাঙ্গিয়ে দাপট দেখিয়ে সকলকে দমিয়ে রাখে বিধায় এদেরকে কেহ রোধ করতে পারছে না। এদের কঠোর শাস্তির দাবী জানান এলাকাবাসী।
স্থানীয় চেয়ারম্যান জসিমউদদীন মোল্যা জানান,বিষয়টি তিনি লোকমুখে শুনেছেন,তবে এ ধরনের অপরাধ করা কাহারই ঠিক নয়। সঠিক তদন্তের মাধ্যমে তিনি অপরাধীদের আইনের আওতায় আনার দাবী জানান।
এ বিষয়ে ভীমপুর তদন্ত কেন্দ্রের আই,সি,র সাথে মোবাইলে কথা হলে তিনি জানান,তাদের কাছে এ বিষয়ে কেহ লিখিত অভিযোগ দিলে,অবশ্যই আইনগত ব্যবস্থা নেবেন বলে তিনি জানান।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




কপিরাইট © ২০২১ || দি ডেইলি আজকের আলোকিত সকাল - সর্বসত্ত্ব সংরক্ষিত