শিরোনাম :
তজুমদ্দিনে মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান প্রার্থীর উপর হামলা,আটক ৩ সাগরে তৈরি হয়েছে ঘূর্ণিঝড় রিমাল, দশ নম্বর মহাবিপদ সংকেত  নাটোর ০৪ আসনের সংসদ সদস্যের বিরুদ্ধে সাংবাদিকদের মানববন্ধন কেন্দুয়ায় দু’পক্ষের সংঘর্ষে একজনের মৃত্যু  ফরিদপুরে জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলামের ‌ ১২৫ তম  জন্মবার্ষিকী পালিত  পূর্ব তিমুরের মতো খ্রিষ্টান দেশ বানানোর চক্রান্ত চলছে এমপি আনার হত্যায় জিহাদের লোমহর্ষক বর্ণনা সাগরে তৈরি হয়েছে ঘূর্ণিঝড় রিমাল, সাত নম্বর বিপদ সংকেত  বড়াইগ্রামে সাংবাদিকদের নিয়ে এমপি’র আপত্তিকর বক্তব্য, সর্বত্র ক্ষোভ   সাতক্ষীরায় পৃথক সড়ক দূর্ঘটনায় এক কলেজ ছাত্রসহ দুই জনের মৃত্যু
নওগাঁর মান্দায় ইউপি ভবনে শতাধিক মৌচাক

নওগাঁর মান্দায় ইউপি ভবনে শতাধিক মৌচাক

নওগাঁ থেকে মাহমুদুন নবী বেলাল : ‘মৌমাছি, মৌমাছি কোথা যাও নাচি নাচি দাঁড়াও না একবার ভাই। ওই ফুল ফোটে বনে যাই মধু আহরণে দাঁড়াবার সময় তো নাই…’ কবিতাটি এখন বইয়ের পাতায় সীমাবদ্ধ। গত কয়েক বছর আগেও যেখানে মৌসুমে চারদিকে মৌমাছির ভোঁ ভোঁ শব্দ শোনা যেত, সময়ের বিবর্তনে প্রকৃতিতে গাছপালা কমে যাওয়ায় মৌমাছিরা আর বাসা বাঁধতে পারে না। গাছপালা কমে যাওয়ায় মৌমাছিরা মধু মৌসুমে উঁচু কোনো ভবনের কার্নিশে বাসা বাঁধছে। আবার মৌ চাষিরা মৌ বাক্সের মাধ্যমে কৃত্রিমভাবে মধু সংগ্রহ করছে। তবে মৌমাছি প্রকৃতিতে মৌচাক বাঁধতে স্বাচ্ছন্দ্য বোধ করে। তেমনি জেলার মান্দা উপজেলার ভারশোঁ ইউনিয়ন পরিষদের ভবনের কার্নিশে এ বছর প্রায় শতাধিক মৌচাক করেছে মৌমাছি। ইউনিয়ন পরিষদের পাশেই রয়েছে ফসলের ক্ষেত। প্রায় দুই কিলোমিটার বিস্তৃর্ণ এলাকাজুড়ে রয়েছে সরিষার সমারোহ। এসব ক্ষেতে চাষিরা এ মৌসুমে সরিষার চাষ করে থাকেন। আশপাশে কোনো গাছের বাগান বা বড় গাছ না থাকায় ইউনিয়ন পরিষদের ভবনের কার্নিশে নিরাপদে মৌমাছিরা মৌচাক বেঁধেছে। এ পরিষদ ভবনের চারপাশের কার্নিশে প্রায় শতাধিক মৌচাক লাগিয়েছে। হঠাৎ করে কেউ দেখলে মনে করতে পারেন, এটা ইউনিয়ন পরিষদ না, যেন মৌমাছির বাড়ি। ইউনিয়ন পরিষদে সেবা নিতে আসা স্থানীয় হারুন-অর-রশীদ, হাসান আলী ও আলম বলেন, গত কয়েক বছর থেকে মৌমাছি নিজ থেকে এসে ভবনের কার্নিশে মৌচাক বাঁধা শুরু করে। ভারশোঁ ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মোস্তাফিজুর রহমান সুমন বলেন, নওগাঁ জেলার মধ্যে এ বছরে সব চেয়ে বেশি সরিষার ফসল হয়েছে মান্দা উপজেলায়। একারনে বিভিন্ন এলাকার  মৌচাষিরা মধু সংগ্রহের জন্য এসেছে। সরিষা ক্ষেতের পাশে মৌ বাক্সের মাধ্যমে ভ্রাম্যমাণ মৌচাষিরা কৃত্রিমভাবে যে মধু সংগ্রহ করছেন, তার থেকে এ মধুর চাহিদা রয়েছে ব্যাপক। প্রতি কেজি মধু ৩০০-৪০০ টাকা দরে বিক্রি হচ্ছে। এখন পর্যন্ত প্রায় ১৫ হাজার টাকার মতো মধু বিক্রি করা হয়েছে। মধু বিক্রির টাকা থেকে ইউনিয়ন পরিষদের উন্নয়নমূলক কাজ এবং শীতার্তদের জন্য শীতবস্ত্র বিতরণ করা হচ্ছে।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




কপিরাইট © ২০২১ || দি ডেইলি আজকের আলোকিত সকাল - সর্বসত্ত্ব সংরক্ষিত