শিরোনাম :
কেন্দুয়া কৈজানি নদীতে ঝাঁপ দেয়া হালিমের লাশ উদ্ধার খুলনায় ট্রাক-কাভার্ডভ্যান মুখোমুখি সংঘর্ষে চালক নিহত শাহজাদপুরে পিপিভি নারীকে চাকরিতে পূর্ণবহালের দাবীতে মানববন্ধন ও সমাবেশ  শেরপুরে বন বিভাগের রেঞ্জ কর্মকর্তার বিচার দাবিতে মানববন্ধন সালথায় পেঁয়াজের আড়তে ভোক্তা অধিদপ্তরের তদারকি দিঘলিয়ায় সাবেক প্রেসিডেন্ট হুসাইন মুহাম্মদ এরশাদের ৫ম মৃত্যু বার্ষিকী পালন মিরপুর বিআরটিএ কার্যালয়ে অভিযান ; ২ দালালের সাজা কেন্দুয়ায় ফুটবল প্রীতিম্যাচ অনুষ্ঠিত কেন্দুয়ায় বাবার বাড়ি পুড়িয়ে দিল ছেলে ধীরগতিতে কমছে যমুনার পানি বানভাসির মধ্যে বিশুদ্ধ পানিসহ তীব্র খাদ্য সংকট
নওগাঁর রাণীনগর পারইল উচ্চবিদ্যালয়ে নিয়োগ ব্যানিজ্যের অভিযোগ 

নওগাঁর রাণীনগর পারইল উচ্চবিদ্যালয়ে নিয়োগ ব্যানিজ্যের অভিযোগ 

এ.বি.এম. হাবিব:
নওগাঁ জেলার রানীনগর উপজেলার বিশিয়া ইউনিয়নের পারইল উচ্চবিদ্যালয়ে প্রধান শিক্ষক তার নিজ ছেলেকে নিয়োগ দিতে প্রশ্নপত্র আগেই তার ছেলেকে দেওয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে।
সেখানে ৩টি পদে নিয়োগের জন্য মোটা অংকের লেন-দেন করে নিয়োগ ব্যানিজ্য করেছে বলেও অভিযোগ করেন স্থানীয়রা। প্রধান শিক্ষকের ছেলে মামুন,সুবাস চন্দ্রের ছেলে বিকাশ চন্দ্র এবং রসুলের স্ত্রীকে নিয়োগ দেবে বলে জানিয়েছেন। এ বিষয়টি নিয়ে অন্যান্য প্রার্থীরা সহ স্থানীয়বাসীরা ক্ষোভ প্রকাশ করে এই নিয়োগ স্থগিতের দাবী জানান।
সরেজমিনে গিয়ে জানা যায়, পারইল উচ্চবিদ্যালয়ে শুক্রবার শত শত এলাকাবাসী স্কুলের বাহিরে দাঁড়িয়ে আছে। তারা ক্ষোভ প্রকাশ করে জানায়, এই স্কুলের প্রধান প্রধান শিক্ষক সাত্তার মাস্টার তার ছেলে মামুনুরকে নিয়োগ ব্যানিজ্যের মাধ্যমে নিয়োগ দেওয়ার জন্য সকল প্রস্তুতি নিয়েছে। আজ শুক্রবার ছুটির দিন, প্রধান শিক্ষক সাত্তার মাস্টার স্কুলের ভিতর কি করছে,,,তার ছেলেকে নিয়োগ দেওয়ার সকল কাগজপত্র এই ছুটির দিনে গোপনে স্কুলে বসে ঠিক করছে। তাদের অভিযোগের সত্যতা পাওয়া স্কুলের ভিতরে গিয়ে।  দেখা যায়, সাংবাদিকদের দেখেই প্রধান শিক্ষক তরিঘরি করে কাগজপত্র গুলো আলমারিতে রেখে দেয়,দেখতে চাইলে তা দেখাতে অস্বীকৃতি জানায়। প্রধান শিক্ষককের ছেলে, মামুনুর (মামুন), সুবাস চন্দ্রের ছেলে, বিকাশ চন্দ্র এবং মুরগী ব্যবসায়ীর স্ত্রীকে নিয়োগ অর্থ লেন-দেনের মাধ্যমে এই নিয়োগ দেওয়া হচ্ছে, নিয়োগের আগেই তাদের নাম প্রকাশ সহ বাঁকীদের নাম বাতিল হয়েছে এটা কিভাবে সম্ভব,,সাংবাদিকদের এমন প্রশ্নে প্রধান শিক্ষক সাত্তার মাষ্টার সঠিক উত্তর না দিয়ে বিভিন্ন ধরনের তাল-বাহানা মুলক কথা বলেন।
এমন অর্থ ব্যানিজ্যের মাধ্যমে নিয়োগ প্রকৃিয়া স্থগিত করে, পরবর্তীতে সঠিক প্রক্রিয়ায় যোগ্যতার ভিত্তিতে নিয়োগ দেওয়ার জন্য অন্যান্য প্রার্থীসহ স্থানীয়রা কর্তৃপক্ষের প্রতি অনুরোধ জানান।
এ বিষয়ে নওগাঁ জেলা শিক্ষা অফিসার এর সাথে মোবাইল ফোনে জানতে চাইলে তিনি জানান, তিনি লিখিত অভিযোগ পেলে তদন্ত সাপেক্ষে আইনগত ব্যবস্থা নিবেন বলে জানান।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




কপিরাইট © ২০২১ || দি ডেইলি আজকের আলোকিত সকাল - সর্বসত্ত্ব সংরক্ষিত