বিভাগ পেরিয়ে এবার প্রাথমিকে জাতিয় পর্যায়েও শ্রেষ্ঠ সভাপতি হওয়ার চেষ্টা

বিভাগ পেরিয়ে এবার প্রাথমিকে জাতিয় পর্যায়েও শ্রেষ্ঠ সভাপতি হওয়ার চেষ্টা

মোঃ ফরিদুল ইসলাম স্টাফ রিপোর্টার:
প্রাথমিক শিক্ষার উন্নয়নে বিশেষ অবদান রাখায় ২০১৭ ও ২০১৯ সালে বরিশাল বিভাগের প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ব্যবস্থাপনা কমিটির শ্রেষ্ঠ সভাপতি নির্বাচিত হয়েছেন মোঃ কামাল হোসেন। তিনি ভোলার উপশহর বাংলাবাজার ফাতেমা খানম সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সভাপতি। বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক শামিমা আক্তার বলেন,সাবেক বানিজ্য মন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ ১৯৭৫ ইং সালে তার মায়ের নামে এ বিদ্যালয়টি প্রতিষ্ঠা করেন। মোঃ কামাল হোসেন ২০১৬ সাল থেকে এ বিদ্যালয়ের ব্যবস্থাপনা  (এসএমসি) কমিটির সভাপতি নিযুক্ত হন। এর পর থেকে  মাতৃহারা, গৃহহারা,ঝড়ে পড়া ও অবহেলিত পথ শিশুদেরকে বিদ্যালয়মুখী করার জন্য নানান উদ্যোগ গ্রহন করেছেন।ছাত্র-ছাত্রীদের উৎসাহিত করতে তিনি ব্যক্তিগত ভাবে আর্থিক সহায়তা দিয়ে বেশ কিছু শিক্ষার্থীদের শিক্ষার দ্বায়িত্বভার নিয়েছেন। শিক্ষার বিকাশ ঘটাতে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান, শিক্ষক শিক্ষার্থী ও অভিবাবকদের বিভিন্ন ভাবে উৎসাহ-উদ্দিপনা দিয়ে যাচ্ছেন। শিক্ষার্থীদের মাঝে বই কলম, জার্সি খেলাধুলার সামগ্রীসহ নানা উপকরণ ও পুরস্কার বিতরণ করে উৎসাহিত করছেন। এমনকি শিশুদের বিনোদনের জন্য পার্ক তৈরি করেছেন। গরীব ছাত্র – ছাত্রীেদর মাঝে স্কুল ড্রেস, মিড – ডে মিল এবং অভিবাবক সভার মাধ্যমে শিশুরা যেন বিপদগামী না হয় সে জন্য টাকার পরিবর্তে টিপিন বক্স দিয়ে অভিবাবকদের উৎসাহিত করে ব্যাপক সচেতনতা সৃষ্টি করেছেন। বিদ্যালয়ের এরিয়ার মধ্যে রাস্তাসহ বিভিন্ন প্রকারের ফুল গাছ, ফল গাছ,ঔষধি গাছ,কাঠ গাছসহ বিভিন্ন ধরনের বৃক্ষরোপন করেছেন। ১ম থেকে ৫ম শ্রেনী  পর্যন্ত মেধাবী ছাত্র -ছাত্রী, বৃত্তিপ্রাপ্ত ও সমাপনী পরিক্ষায়  A+ প্রাপ্তদের মাঝে পুরস্কার বিতরণ এবং সচেতন অভিবাবকদের পুরস্কার প্রদান করে নতুন দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছেন।মোঃ নুর সলেমান, নুরুন নাহারসহ একাধিক অভিবাবক বলেন, কামাল হোসেন এর মত একজন মহৎ ব্যক্তি এই বিদ্যালয়ের সভাপতি হওয়ায় আমরা সবাই আনন্দিত। তিনি বিদ্যালয়ের পাশাপশি সমাজ ব্যবস্থার প্রতিও অনেক কঠোর। এরই মধ্যে তিনি বাল্য বিয়ে প্রতিরোধ, ইভটেজিং,মাদক বিরোধী আন্দোলন ও  সামাজিক কর্মকান্ডে সক্রিয় ভাবে অংশগ্রহন করে সমাজে একজন আদর্শবান মানুষ হিসেবে নিজেকে পরিচিতি লাভ করেছেন।ভোলা সদর উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা  শিরিন আক্তার বলেন,শ্রেষ্ঠ হওয়ার জন্য আবেদন কারীকে নির্ধারিত ফরমের ছক পুরন করতে হয়। কিছু ব্যতিক্রমী কার্যক্রম করতে হয়। সব মিলিয়ে যার কাজ,বিদ্যালয়ের ফলাফলসহ কার্যক্রম ভাল, তিনিই সেরা নির্বাচিত হন । তার ব্যক্তিগত মূল্যায়ন,ফাতেমা খানম সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সভাপতি  বিদ্যালয়ের জন্য যথেষ্ট আন্তিরক। তাই তিনি বরিশাল বিভাগে শ্রেষ্ঠ সভাপতি নির্বাচিত হয়েছেন।
এ বিষয়ে জেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা নিখিল চন্দ্র হালদার বলেন, এ বিদ্যালয়ের পড়াশোনার মান অনেক ভাল।  শিক্ষার মানের উন্নয়নে সভাপতির অনেক ভুমিকা আছে।সভাপতি মোঃ কামাল হোসেন বলেন, এ বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের সমাজে আদর্শবান মানুষ হিসেবে গড়ে তোলাই তার লক্ষ। তিনি জাতিয়  পর্যায়েও শ্রেষ্ঠ সভাপতি নির্বাচিত হওয়ার ব্যাপারে প্রত্যাশা ব্যক্ত করেছেন।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




কপিরাইট © ২০২১ || দি ডেইলি আজকের আলোকিত সকাল - সর্বসত্ত্ব সংরক্ষিত