শিরোনাম :
দিঘলিয়া উপজেলা শেখ রাসেল মিনি স্টেডিয়ামের ভিত্তি প্রস্তর স্থাপনে ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী  নওগাঁয় মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তর এর অভিযানে ৬কেজি গাঁজাসহ আটক-১ নাহিদুজ্জামান বাবুর স্বীকারোক্তি মূলক জবানবন্দি  সিরাজগঞ্জে গরু চুরিতে বাধা দেওয়ায় পিকআপের চাপায় গৃহবধু হত্যা,ডাকাত দলের ৪ পলাতক আসামী গ্রেফতার বড়াইগ্রামে পাটোয়ারী কোয়ালিটি এডুকেয়ার ইনস্টিটিউটে বার্ষিক ক্রীড়া প্রতিযোগীতা অনুষ্টিত পূর্বধলায় সরকারী চাকুরীজীবী হওয়া সত্বেও করেন সাংবাদিকতা খুলনায় মাসব্যাপী একুশে বইমেলা শুরু ,বই ছাড়া জ্ঞান অর্জন করা যায় না -সিটি মেয়র বিভাগীয় সমাবেশ উপলক্ষে ঠাকুরগাঁওয়ে বিএনপির বর্ধিত সভা পাতাল রেল নির্মাণ কাজের উদ্বোধন রোহিঙ্গা প্রসঙ্গে ‘বিশ্ব হাত গুটিয়ে বসে থাকলে আবারো ২০১৭ সালের পুনরাবৃত্তি হবে :জাতিসংঘ
বড়াইগ্রামে হাতকড়া পড়া মৃতদেহের পরিচয় মিললো ৮ দিন পর, অন্তর্দ্বন্দ্বেই খুন 

বড়াইগ্রামে হাতকড়া পড়া মৃতদেহের পরিচয় মিললো ৮ দিন পর, অন্তর্দ্বন্দ্বেই খুন 

নাটোর প্রতিনিধি:
নাটোরের বড়াইগ্রামের মাঝগাঁও বোয়ালিয়া  বিলে পাওয়া হাতকড়া লাগানো মৃতদেহের পরিচয় মিললো ৮ দিন পর। নিহত ওই যুবকের নাম আমিরুল ইসলাম আনিস (৩২)। সে সিরাজগঞ্জের বেলকুচি উপজেলার নাকফাটা বয়রা মাসুম গ্রামের সাবের আলী সরকারের ছেলে। পুলিশ এই হত্যাকান্ডের সাথে জড়িত সন্দেহে একই উপজেলার দারপুর গ্রামের আকছেদ আলীর ছেলে গোলাম আযম (৩০) কে আটক করেছে। বুধবার রাত ৮টার দিকে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন বড়াইগ্রাম থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আবু সিদ্দিক। গত ১০ জানুয়ারী সকাল ১১টার দিকে বোয়ালিয়া বিল থেকে পেছনে দুই হাত একসঙ্গে হাতকড়া পড়া ও পা বাঁধা মৃতদেহটি উদ্ধার করে পুলিশ। খবর পেয়ে সিআইডি ও পিবিআই এর একটি বিশেষ টীম এসে নিহতের আঙ্গুলের ছাপ নিয়ে জাতীয় পরিচয়পত্র বের করার চেষ্টা করলেও তা মিলেনি। এরপর নিহতকে সনাক্ত করার জন্য বিভিন্নভাবে প্রচার ও অনুসন্ধান চালানোর ৮দিন পর তার পরিচয় মেলে।
থানার ওসি আবু সিদ্দিক হত্যা কান্ডের নেপথ্যের ঘটনা তুলে ধরে জানান, নিহত আমিরুল ইসলাম আনিস একটি মাছবাহী ট্রাকের হেলপার ছিলেন। এই কাজের অন্তরালে তিনি তার সংঘবদ্ধ চক্রের সাথে বিভিন্ন অপরাধমূলক কর্মকান্ড চালিয়ে যাচ্ছিলেন। মূলতঃ নিজেদের মধ্যে ভাগাভাগি নিয়ে দ্বন্দ্ব, পাশাপাশি গোপনীয়তা ফাঁসের আশঙ্কায় তাকে হত্যা করার পরিকল্পনা করেন সহযোগীরা। এরই কৌশল হিসেবে বড়াইগ্রামের মাঝগাঁও এলাকায় অপারেশন চালাবে এমন কথা বলে তারা বনপাড়া বাইপাস মোড়ে একত্র হওয়ার পরিকল্পনা নেয়। ঘটনার রাতে ১১টার দিকে ঢাকা থেকে ২ জন ও সিরাজগঞ্জ থেকে আনিস সহ ২ জন বনপাড়া বাইপাসে একত্র হয়। পরে মাঝগাঁও বউবাজার এলাকায় এসে বিল পাড়ি দেওয়ার কথা বলে মাঝ বিলে নিয়ে যায় আনিসকে। সেখানে অপরাধ সংঘটিত করার জন্য নিয়ে আসা হাতকড়া, সড়কে মোটরসাইকেল আটকানোর জন্য আনা রশি দিয়ে তাকে বেঁধে শ্বাসরোধে হত্যা করে সহযোগীরা। পরে লাশ ফেলে রেখে ২ জন ঢাকায় ও আটককৃত আযম সিরাজগঞ্জের নিজ গ্রামে চলে আসে। পরবর্তীতে ব্যাপক পুলিশী তদন্তে নিহতের পরিচয় পাওয়া যায় ও আযমকে আটক করা হয়। ওসি আরও জানায়, অপর ২জন সহ সংঘবদ্ধ চক্রের সকলকে আটকের চেষ্টা চলছে।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published.




কপিরাইট © ২০২১ || দি ডেইলি আজকের আলোকিত সকাল - সর্বসত্ত্ব সংরক্ষিত