যে রাঁধে সে চুলও বাঁধে, অভিনন্দন বাঘিনী

যে রাঁধে সে চুলও বাঁধে, অভিনন্দন বাঘিনী

 হাসান: নারী রাঁধুনি এই প্রবাদ বাক্যটি যেন ভূলতে বসেছে সমাজ।সাফ চ্যাম্পিয়ন নারী ফুটবল দলের অর্জনের মধ্য দিয়ে আবারও প্রমাণ করলো নারী শুধু রাঁধে না চুলও বাঁধে। বাংলাদেশকে উন্নত বিশ্বের সামনে উন্নত রাষ্ট্র হিসেবে পোঁছে দিতে নিরলশ পরিশ্রম করে যাচ্ছেন বাংলাদেশের সফল প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তিনি ও একজন নারী। বাংলাদেশের নারী ফুটবল দলের রুপনা চাকমা।যার একমাত্র বসবাস করা ঘরটিও ছিলো জীর্ণশীর্ণ। দিনের সূর্যের আলোয় ঘুম ভাঙ্গে আর রাতে চাঁদের আলো উঁকি দিয়ে যায়।এক পসলা বৃষ্টি এলে বসতে হয় এক কোণে। কিন্তু এতো দুঃখ কষ্ট সহ্য করে ও সপ্ন দেখেছেন নিজে কিছু করার। শুরু হয় রুপনার জীবন যুদ্ধ।লোক সমাজের কটু কথা অভাব অনটন সব কিছুর মাঝে এগিয়ে যাওয়া নারী ফুটবল দলের অগ্নি কন্যা সফল গোল রক্ষক রুপনা চাকমা তার সফলতার ঝুড়িতে নিয়ে আসলো গোটা বাংলাদেশের সাফল্য। জাম্বুরা দিয়ে অনুশীলন শুরু করেন টাঙ্গাইলের আরেক নারী ফুটবল তারকা।তার ভিতরে ফুটবলের প্রতি ভালোবাসা দেখে ছোট একটি ফুটবল কিনে দেন বাবা। কিন্তু লোক সমাজের কটু কথা আর অবহেলা দেখে ফুটবলটি কেটে ফেলে আজকের সারা বাংলাদেশে আলোকিত করা সেই নারী ফুটবল তারকা কৃষ্ণা সরকার এর মা। মেয়ের সফলতা দেখে এ ভাবেই তার জীবনের সবচেয়ে স্মরনীয় মুহূর্তগুলোর কথা বললেন কৃষ্ণা সরকারের মা। বাংলাদেশের নারী ফুটবল দলের বাঘিনীদের সফলতা আবারও মনে করিয়ে দিতে চায় সমাজকে নারীরা এগিয়ে যাচ্ছে সমান তালে। বাংলাদেশের প্রতিটা সেক্টরে নারীরা কাজ করছে পুরুষের পাশাপাশি। কুড়িয়ে আনছে সফলতা। তাইতো আজ সমাজ বলে।যে রাঁধে সে চুলও বাঁধে।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published.




কপিরাইট © ২০২১ || দি ডেইলি আজকের আলোকিত সকাল - সর্বসত্ত্ব সংরক্ষিত