যৌতুকের লোভে প্রথম স্ত্রীকে তাড়িয়ে ২য় বিয়ে করলেন যৌতুক লোভী মাহমুদুল হাসান

যৌতুকের লোভে প্রথম স্ত্রীকে তাড়িয়ে ২য় বিয়ে করলেন যৌতুক লোভী মাহমুদুল হাসান

বিশেষ প্রতিবেদন : না এটি কোন সিনামার গল্প নয়, বাস্তবে এমনটাই ঘটেছে নেত্রকোনা জেলার মদন উপজেলার জঙ্গলটেংগা গ্রামে। প্রতারক ও যৌতুক লোভী মাহমুদুল হাসান প্রথম স্ত্রী হীরামনির সাথে পারিবারিকভাবে ইসলামি শরিয়ত মোতাবেক বিয়ে হয়েছিল। কিছুদিন যেতেই বিভিন্ন অযুহাত দেখিয়ে হীরামনিকে বাড়ি থেকে বেড় করে দেয় প্রতারক ও যৌতুক লোভী মাহমুদুল হাসান। হীরামনির দাবি, “আমার জমানো অর্থ-সম্পদের উপর লোভ ছিল মাহমুদুল হাসানের। আমার জমানো অর্থ আত্মসাৎ করে মাহমুদুল ও তার বাবা-মা আমাকে জোরপূর্বক বাড়ি থেকে বের করে দিয়েছে। বর্তমানে মাহমুদুল হাসান মোটা অংকের যৌতুক নিয়ে ২য় বার বিয়ে করেছে। এ বিষয় নিয়ে আমি স্থানীয় এলাকার মুরুব্বি, এলাকার মাতব্বরদের কাছে বারবার গিয়েও কোন সুরাহা পাইনি। তাই বাধ্য হয়ে গাজীপুর জেলা আদালতে গিয়ে ন্যায় বিচার দাবী করি এবং মহামান্য আদালতে ন্যায় বিচারে প্রতারক ও যৌতুক লোভী মাহমুদুল হাসানকে আটক করে কারাগারে প্রেরন করা হয়েছে”। সরেজমিনে এ বিষয় নিয়ে স্থানীয় এলাকাবাসীরা বলেন, মাহমুদুল হাসানের মতো যৌতুক লোভী ও প্রতারকদের জন্যই বর্তমানে বাংলাদেশে অসংখ্য হীরামনিদের সংসার ভেঙ্গে যাচ্ছে। ক্ষমতা আর টাকার জোরে আড়াল হয়ে যাচ্ছে এমন জঘন্যতম অপরাধিরা। সমাজে এমন অসংখ্য অপরাধি আছে, এখনই সময় তাদের রুখে দাড়ানোর। তাদের আইনের আওতায় এনে উপযুক্ত এবং কঠিনতম শাস্তি প্রদান করা উচিত। যাতে করে আর কেউ যৌতুকের লোভে পরে কোন প্রতারনা করতে না পারে।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




কপিরাইট © ২০২১ || দি ডেইলি আজকের আলোকিত সকাল - সর্বসত্ত্ব সংরক্ষিত