শিরোনাম :
কেন্দুয়া কৈজানি নদীতে ঝাঁপ দেয়া হালিমের লাশ উদ্ধার খুলনায় ট্রাক-কাভার্ডভ্যান মুখোমুখি সংঘর্ষে চালক নিহত শাহজাদপুরে পিপিভি নারীকে চাকরিতে পূর্ণবহালের দাবীতে মানববন্ধন ও সমাবেশ  শেরপুরে বন বিভাগের রেঞ্জ কর্মকর্তার বিচার দাবিতে মানববন্ধন সালথায় পেঁয়াজের আড়তে ভোক্তা অধিদপ্তরের তদারকি দিঘলিয়ায় সাবেক প্রেসিডেন্ট হুসাইন মুহাম্মদ এরশাদের ৫ম মৃত্যু বার্ষিকী পালন মিরপুর বিআরটিএ কার্যালয়ে অভিযান ; ২ দালালের সাজা কেন্দুয়ায় ফুটবল প্রীতিম্যাচ অনুষ্ঠিত কেন্দুয়ায় বাবার বাড়ি পুড়িয়ে দিল ছেলে ধীরগতিতে কমছে যমুনার পানি বানভাসির মধ্যে বিশুদ্ধ পানিসহ তীব্র খাদ্য সংকট
সুনামগঞ্জে হাওড়ের ধান কাটাকে কেন্দ্র করে দুই পক্ষের সংঘষ, আহত ২

সুনামগঞ্জে হাওড়ের ধান কাটাকে কেন্দ্র করে দুই পক্ষের সংঘষ, আহত ২

নিজস্ব প্রতিনিধি:
সুনামগঞ্জে হাওড়ের ধান কাটাকে কেন্দ্র করে দুই পক্ষের সংঘর্ষ হয়েছে। এতে আহত হয়েছে ২জন।

জানা যায়, গত ১৮ই এপ্রিল বৃহস্পতিবার সুনামগঞ্জের দীরাই থানাধীন জটিচর গ্রামের মৃত ফজলুল হকের ছেলে আজির উদ্দিনের সাথে আব্দুল হকের ছেলে আরফা উদ্দিনের ধান টানার ট্রলি গাড়ী নিয়ে বেশ কিছু কথা কাটাকাটি হয়। একপর্যায়ে আরফা উদ্দিন কিছু লোকজন নিয়ে আজির উদ্দিন ও তার ড্রাইভার হৃদয়কে বেদম মারধর করে। এতে আজির উদ্দিন ও ড্রাইভার হৃদয় দুজনেই রক্ত-জখম হয়। তাৎক্ষনিক তাদেরকে সিলেট ওসমানি মেডিকেলে ভর্তি করে চিকিৎসা প্রদান করে এলাকার লোকজন। তবে দুজনেই এখন আশঙ্খাজনক অবস্থায় চিকিৎসাধীন রয়েছে।

এ ব্যাপারে দীরাই থানায় একটি মামলা প্রক্রিয়াধীন রয়েছে। মামালায় আব্দুল হকের ছেলে আরফা সহ ৪ ভাই, মৃত গনি মিয়ার ছেলে সামির আলি সহ ৩ভাই ও এক ভগ্নিপতি নানু মিয়া,সামির আলির ছেলে বাপ্পি, সামির আলীর ভাগিনা সাগর হোসেন এবং কুতুব আলীর ছেলে সবুজ মিয়ার নাম উল্লেখ রয়েছে।

বিষয়টি নিয়ে আজির উদ্দিনের কাছে জানতে চাওয়া হলে বলেন, আরফা উদ্দিন তুচ্ছ একটি ঘটনাকে কেন্দ্র করে আমাকে বেআইনিভাবে বেদম মারধর করে। আমি এ ব্যাপারে দীরাই থানার অফিসার ইনচার্জকে জানিয়েছি । তিনি সব কিছু শোনার পর বিষয়টি নিয়ে মামলার প্রক্রিয়াধীন রেখেছেন। আমি তাঁর কাছে আইনি ব্যবস্থার মাধ্যমে আরফার উপযুক্ত বিচার চাই।
আরও জানা যায়, আরফা উদ্দিন একজন গ্রামের উশ্চৃঙ্খল ব্যক্তি এবং সুেদর ব্যাবসায়ী। গ্রামের অনেকে জানান আরফা উদ্দিন সুদের টাকার গরমে গ্রামের মানুষকে মানুষ বলে মনে করে না। যারতার সাথে যখন তখন সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে। তার আতঙ্কে গ্রামের মানুষের শান্তিতে বসবাস কারাই কঠিন হয়ে দাড়িয়েছে।

উল্লেখ্য, থানায় মামলা হওয়ার বিষয়টি জানাজানি হলে আরফা উদ্দিন বারবার আজির উদ্দিনের বড় ভাই হেলাল উদ্দিনকে তাদের নাম না দেয়ার বিষয়ে চাপ সৃষ্টি করছে । এমনকি মামলা না করার জন্য বিভিন্ন ভাবে ভয়ভীতিও দেখাচ্ছে।
এ ব্যাপারে আরফা উদ্দিনের কাছে জানতে চাওয়ার জন্য ফোন করা হলে নাম্বার বন্ধ পাওয়া যায়।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




কপিরাইট © ২০২১ || দি ডেইলি আজকের আলোকিত সকাল - সর্বসত্ত্ব সংরক্ষিত