হবিগঞ্জ ছালেহাবাদ নেছারীয়া আদর্শ এতিমখানা ব্যপক সুনাম অর্জন করেছে।

হবিগঞ্জ ছালেহাবাদ নেছারীয়া আদর্শ এতিমখানা ব্যপক সুনাম অর্জন করেছে।

আলমগির হোসেন বাদশা। হবিগঞ্জ জেলাস্থ মাধবপুরে দুনিয়া ও আখেরাতের কল্যানের কথা চিন্তা করে এলাকার দুস্থ অসহায় এতিম শিশুদের প্রতিপালন, চিকিৎসা এবং শিক্ষা প্রদানের মাধ্যমে মানবসম্পদে পরিনত করার লক্ষে মাওলানা সোলাইমান মিয়ার উদ্যোগে এবং এলাকাবাসীর সার্বিক সহযোগীতায় ছালেহাবাদ নেছারীয়া আদর্শ এতিমখানা” নামে ১৯৮৬ সালে একটি এতিমখানা প্রতিষ্ঠা করেন। এখানে নূরানী ও হেবজ শিক্ষা প্রদান করা হয়। বর্তমানে এখানে প্রায় ৫০ জন শিক্ষার্থী আছে। খুজ নিয়ে জানা যায় উক্ত এতিমখানাটির সভাপতি ১১নং বাঘাছুরা ইউপি চেয়ারম্যান মোঃ সাহাবুদ্দিন আহাম্মেদ এবং প্রতিষ্ঠাতা, পরিচালক ও সুপার হিসাবে দ্বায়িত্ব পালন করছেন মাওলানা সোলাইমান মিয়া। এতিমাখানাটি প্রতিষ্ঠার পর থেকে অদ্য পর্যন্ত সার্বিক বিবেচনায় এলাকায় ব্যপক সুনাম অর্জন করেছে। এই প্রতিষ্ঠান হতে শত শত অসহায় এতিম শিশু সু-শিক্ষা অর্জন করেছে। আরও জানা যায় মাওলানা সোলাইমান মিয়া উক্ত এতিমখানা’র সুপার এবং পরিচালনার দ্বায়িত্বে নিয়োজিত থেকে এই প্রতিষ্ঠানটির কল্যানে নিঃস্বার্থভাবে দিন রাত শ্রম দিয়ে যাচ্ছেন। তিনি অক্লান্ত শ্রমের বিনিময়ে এবং বিভিন্ন আর্থিক সহায়তার মাধ্যমে প্রতিষ্ঠানটি সৃষ্টি লগ্ন থেকে অদ্য পর্যন্ত পরিচালনা করে আসছেন। সরজমিনে পরিদর্শন করলে দেখা যায় এখানে সমাজসেবা অধিদফতর হতে সরকারী ক্যাপিটেশন গ্রান্ট সহায়তা পায় মাত্র ৩০ জন এতিম শিক্ষার্থী, কিন্তু অসহায় গরীব ও এতিম ছাত্র রয়েছে প্রায় ৫০ জন। এই সল্প টাকায় অসহায় এতিম ছাত্রদের খরচ চালাতে হিমশিম খেতে হচ্ছে বলে জানিয়েছেন এতিমখানা কর্তৃপক্ষ। তারা সরকারী ক্যাপিটেশন গ্রান্ট সহায়তা প্রদান বৃদ্ধির জন্য সমাজসেবা অধিদফতর এর সু-দৃষ্টি কামনা করেছেন । উক্ত এতিমখানার পরিচালক এবং সুপার মাওলানা সোলাইমান মিয়া বলেন, এখানে দুনিয়ার শান্তি এবং আখেরাতের মুক্তির জন্য পবিত্র কোরআন হেফজ ও পবিত্র কোরআন-হাদিসের সঠিক শিক্ষা প্রদান করা হয়। আমাদের এই প্রতিষ্ঠান এলাকার দুস্থ অসহায় এতিম শিশুদের প্রতিপালন এবং পবিত্র কোরআন ও হাদীস শিক্ষা প্রদানের মাধ্যমে মানবসম্পদে পরিনত করে এলাকায় ইতিমধ্যে ব্যপক সুনাম অর্জন করেছে। আর্থিক সমস্যার কারনে আমরা প্রতিষ্ঠানটি সঠিক ভাবে পরিচালনা করতে পারছিনা। এতিমখানাটি সুষ্ঠুভাবে পরিচালনার জন্য দেশের বিত্তবান ও সরকারী ঊর্ধতন মহলের সু-দৃষ্টি এবং সার্বিক সহযোগিতা কামনা করছি। সাহায্যার্থে: সোনালী ব্যাংক, মাধবপুর শাখা, একাউন্ট নং- ১৯৯৫।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




কপিরাইট © ২০২১ || দি ডেইলি আজকের আলোকিত সকাল - সর্বসত্ত্ব সংরক্ষিত