শিরোনাম :
গাজীপুরে শিক্ষক পরিবারের বিরুদ্ধে শ্লীলতাহানীর অভিযোগ গাজীপুরে সরকারি হাসপাতালে পুলিশসহ ২জনকে কামড়ে দিলো রিক্সা চালক নাটোরের বাগাতিপাড়া উপজেলা জামনগর ডিগ্রি কলেজের নতুন ভবনের উদ্বোধন ভূমিসেবায় এখন কোন হয়রানি নাই, কেউ দালালের কাছে যাবেন না:নরসিংদীর জেলা প্রশাসক গাজীপুরে সুদের টাকা পরিশোধ করেও হয়রানির শিকার রাজবাড়ীতে ট্রেনে কাটা পড়ে মৎসজীবী নিহত মধুপুরে ভূমি সেবা সপ্তাহ  উপলক্ষে বর্ণাঢ্য র‍্যালি অনুষ্ঠিত ভূমি অধিগ্রহণ সম্পন্ন না হওয়ায় পিরোপুরি বন্ধ হয়ে গেছে ভৈরব সেতুর নির্মাণ কাজ ময়মনসিংহের ঈশ্বরগঞ্জে বিয়ের দাবিতে প্রেমিকের বাড়িতে অনশন পাচারকারীর হাত থেকে পালিয়ে দেশে ফিরলো এক যুবতী, ঘটনার সাথে জড়িত গ্রেফতার  ৩ 
শরীয়তপুরে_মানব_পাচারকারী_চক্রের_০১_জন_গ্রেফতার

শরীয়তপুরে_মানব_পাচারকারী_চক্রের_০১_জন_গ্রেফতার


 মাসুদ পারভেজঃ শরীয়তপুরে মানব পাচারকারী চক্রের ০১ জন গ্রেফতার হয়েছে। জাজিরা থানার মামলা নং- ১৯, তারিখঃ- ২৫/০৬/২০২০ খ্রিঃ। এজাহারনামীয় আসামী মোঃ সাইদুর রহমান বেপারী (৫২), পিতা- আঃ রশিদ বেপারী, স্থায়ী : গ্রাম- বল্লবর্দী, থানা- মাদারীপুর সদর, জেলা- মাদারীপুরকে গ্রেফতার করে শরীয়তপুর জাজিরা থানা পুলিশ।
বর্ণিত গ্রেফতারকৃত এজাহারনামীয় আসামী মোঃ সাইদুর রহমান বেপারী (৪৫) ও এজাহারনামীয় অপর আসামী কোব্বাছ মাদবর (৩৫)-দ্বয় অজ্ঞাতনামা আসামীদের নিয়ে পরষ্পর যোগসাজশে সংঘবদ্ধভাবে দীর্ঘদিন যাবত মানবপাচার করিয়া আসিতেছে। আসামীদ্বয় পরষ্পর যোগাসাজশে মামলার বাদীনির ছেলে আসিফ হোসেন লিমন-কে টার্গেট করিয়া তাহাকে বিদেশে নেওয়ার জন্য বিভিন্ন উপায়ে প্ররোচণা দিতে থাকে। বাদীনি সহ তাহার স্বামী ও ছেলে আসামীদের ষড়যন্ত্র বুঝিতে না পরিয়া আসিফ হোসেন লিমনের উজ্জল ভবিষ্যতের আশায় আসামীদের প্ররোচনায় বাদীর ছেলেকে গ্রীস দেশে পাঠাইতে রাজি হয়। তারই ধারাবাহিকতায় ০৫/০৫/২০১৯ ইং তারিখ দুপুর আনুমাণিক ১২.০০ ঘটিকায় ০১নং আসামী মোঃ সাইদুর রহমান বেপারী জাজিরা পৌরসভাধীন কবিরাজ কান্দি সাকিনের বাদীনির স্বামী তোফাজ্জল হাকিদার (৪৩) এর বসত বাড়ীতে আসিয়া বাদীনির ছেলে আসিফ হোসেন লিমনকে গ্রীস দেশে পাঠানোর খরচ বাবদ ১২ লক্ষ টাকা চায়। তখন ০২নং আসামী কোব্বাছ মাদবর প্রবাস হইতে তাহার ব্যবহৃত মোবাইল নাম্বার হইতে বাদীনির স্বামীর ব্যবহৃত মোবাইল নাম্বারে এবং ০১নং আসামী সাইদুর রহমান বেপারীর ব্যবহৃত মোবাইল নাম্বারে ফোন কল করিয়া জানায় যে, উক্ত টাকা ০১নং আসামীর নিকট প্রদান করিলেই সে বাদীনির ছেলেকে গ্রীসে নেওয়ার সকল ব্যবস্থা করিবে। সাক্ষীদের উপস্থিতিতে বাদীনির স্বামী ০১নং আসামী সাইদুর রহমান বেপারীর হাতে নগদ ৭,২০,০০০/-টাকা দেয়। ০১নং আসামী উক্ত টাকা গুনিয়া বুঝিয়া নিয়া ০২নং আসামীকে টাকা পাওয়ার বিষয়টি মোবাইল ফোনে জানাইলে সে জানায় যে, অবশিষ্ট টাকা বাদীনির ছেলে গ্রীসে পৌছানোর পরে দিতে হবে।
এরপর ইং ১০/০৫/২০১৯ তারিখ সকাল অনুমান ০৮.০০ ঘটিকায় ০১নং আসামী সাইদুর রহমান বেপারী বাদীনির বসত বাড়ীতে আসিয়া ০২নং আসামীসহ অজ্ঞাতনামা আসামীদের সাথে পরস্পর যোগসাজশে বাদীনির ছেলে আসিফ হোসেন লিমনকে গ্রীস দেশে পাঠানোর জন্য শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে নিয়ে তাহাদের পূর্ব পরিকল্পনা অনুযায়ী বাদীনির ছেলে আসিফ হোসেন লিমনকে তুরস্ক দেশে পাচার করে। বাদীনির ছেলে তুরস্ক পৌছাইলে ০২নং আসামী কোব্বাছ মাদরব তাহার সহযোগী অজ্ঞাতনামা আসামীদের নিয়ে বাদীনির ছেলেকে জিম্মি করিয়া অবশিষ্ট ৪,৮০,০০০/-টাকা পরিশোধ করার জন্য চাঁপ প্রয়োগ করে। 
আসামীদের কবল হইতে বাদীনির ছেলেকে উদ্ধার করিতে না পারিয়া গত ০২/০২/২০২০ইং তারিখে বাদীনির স্বামী তোফাজ্জল হোসেন হাকিদার আসামী মোঃ সাইদুর রহমান বেপারীর সোনালী ব্যাংক, রাজৈর শাখার হিসাব নং-৩৪০৫৪২৬৭ অবশিষ্ট ৪,৮০,০০০/-টাকা প্রেরণ করে। 
এরপর ইং ২৮/০২/২০২০ তারিখ সকাল অনুমান ০৪.০০ ঘটিকায় আসামী কোব্বাছ মাদবর সহ অজ্ঞাতনামা আসামীরা তুরস্ক হইতে একটি গাড়ী যোগে সাক্ষী তানভীর বেপারী ও বাদীনির ছেলে আসিফ হোসেন লিমন সহ মোট ১২ জনকে গ্রীসে পাঠানোর উদ্দেশ্যে সাক্ষী তানভীর বেপারীকে সহ মোট ০৯জনকে উক্ত গাড়ীর ভিতরে গাদাগাদি করিয়া প্রবেশ করায় এবং আসামীরা তাঁদের মারপিট করিয়া জোর পূর্বক বাদীনির ছেলে আসিফ হোসেন লিমন সহ আরো ০২জনকে উক্ত গাড়ীর ব্যাকডালার ভিতরে ঢুকিয়ে দিয়ে ব্যাকডালা আটকাইয়া দেয়। আসামীদের মারপিটের কারনে এবং গাড়ীর ব্যাগডালার ভিতরে দীর্ঘ সময় আটক থাকায় বাদীনির ছেলে আসিফ হোসেন লিমন সহ শহিদুল আলম সুজন (৩০), পিতা-জাহাঙ্গীর আলী, সাং ও থানা- দাগনভূইয়া, জেলা-ফেনী-দ্বয় সহ অপর একজন সর্বমোট ০৩জন মারা যায়। 
তখন আসামীরা বাদীনির ছেলে আসিফ হোসেন লিমনের মৃতদেহ সহ অপর দুইজনের মৃতদেহ গ্রীস দেশের আলেকজান্ডা পলি নামক এলাকার রাস্তার পাশে ফাঁকা জায়গায় ফেলিয়া দেয়। 
পরবর্তীতে গ্রীস দেশের পুলিশ বাদীনির ছেলের মৃতদেহ সহ অপর দুইজনের মৃতদেহ উদ্ধার করিয়া Municipality of Volvi, Thessaloniki in Greece এ সংরক্ষণ করেন। এরপর ইং ০৮/০৬/২০২০ তারিখে বাদীনির ছেলের লাশ শাহাজাল আন্তর্জাতিক বিমানন্দর কর্তৃপক্ষের নিকট পৌছাইলে বাদীনি ও তাহার স্বামী উক্ত লাশ গ্রহণ করিয়া দাফনকার্য সম্পাদন করেন।
সর্বশেষ গত ১৫/০৬/২০২০ইং তারিখ বেলা অনুমান ১১.০০ ঘটিকায় বাদীনির স্বামী সাক্ষীগণ নিয়া ০১নং আসামী সাইদুর রহমান বেপারীর বসত বাড়ীতে গিয়া আসামীরা পরস্পর যোগসাজশে বাদীনির ছেলেকে বিদেশ পাচার করিয়া টাকার জন্য আটক রাখিয়া শারীরিকভাবে নির্যাতন করিয়া হত্যার বিষয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করিলে আসামী সাইদুর রহমান বেপারী তাহাদেরকে নানা ধরণের তালবাহানার কথাবার্তা বলাসহ বিভিন্ন কৌশলে ভয়-ভীতি প্রদর্শন করিয়া উক্ত বাড়ী হইতে বাহির করিয়া দেয় মর্মে বাদীনি জাজিরা থানায় মামলা দায়ের করেন, জাজিরা থানার মামলা নং- ১৯, তারিখঃ- ২৫/০৬/২০২০ খ্রিঃ। এজাহারনামীয় গ্রেফতারকৃত আসামী মোঃ সাইদুর রহমান বেপারীকে মামলা সংক্রান্তে প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদ করা হইয়াছে। জিজ্ঞাসাবাদে বাদীনির স্বামীর নিকট হইতে সোনালী ব্যাংক, শরীয়তপুর শাখা হইতে আসামী মোঃ সাইদুর রহমান বেপারীর রাজৈর শাখার এর একাউন্ট নাম্বারে ৪,৮০,০০০/-টাকা গ্রহণ করিয়াছে মর্মে স্বীকার করেছে।
এজাহারে উল্লেখিত মানব পাচার চক্রের সাথে জড়িত অজ্ঞাতনামা আসামীদের পূর্ণাঙ্গ নাম-ঠিকানা উদঘাটন পূর্বক গ্রেফাতার, এজাহারনামীয় পলাতক ০২নং আসামী কোব্বাছ মাদবর এর বর্তমান অবস্থান শনাক্ত পূর্বক গ্রেফতার, বাদীনির নিকট হইতে প্রতারণার মাধ্যমে হাতিয়ে নেওয়া অর্থ উদ্ধার, মানব পাচার মামলার ঘটনায় পন্য/ব্যক্তি প্রবাহ ও অর্থ প্রবাহ/লেনদেনকারী সদস্যদের শনাক্ত পূর্বক গ্রেফতারসহ উক্ত চক্রের প্রত্যেকটা সদস্যদের গ্রেফতার করা, সর্বোপরি মামলার মূল রহস্য উদঘাটনের কার্যক্রম চলমান আছে এবং মামলার রহস্য উদঘাটনের জন্য আসামী মোঃ সাইদুর রহমান বেপারীকে অদ্য ২৬/০৬/২০২০ খ্রিঃ রিমান্ডের আবেদন সহ বিজ্ঞ আদালতে প্রেরণ করা হইয়াছে।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




কপিরাইট © ২০২১ || দি ডেইলি আজকের আলোকিত সকাল - সর্বসত্ত্ব সংরক্ষিত