ঢাকা উত্তর ৪৭ নং ওয়ার্ডের আ. লীগের সাধারণ সম্পাদক পদপ্রার্থী পরিচ্ছন্ন রাজনীতিবিদ জয়নাল আবেদীন

ঢাকা উত্তর ৪৭ নং ওয়ার্ডের আ. লীগের সাধারণ সম্পাদক পদপ্রার্থী পরিচ্ছন্ন রাজনীতিবিদ জয়নাল আবেদীন

মো: জাহাঙ্গীর আলম:

দক্ষিণখান থানা সেচ্ছাসেবক লীগের ক্লিন ইমেজের নেতা থানা সেচ্ছাসেবক লীগের সাবেক সহ-সভাপতি মোঃ জয়নাল আবেদীন। আসন্ন আওয়ামী লীগের ত্রী-বার্ষিক সম্মলনে ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশেনের ৪৭ নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক পদপ্রর্থী তিনি।

মহান স্বাধীনতার স্থপতি, জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের আর্দশের সৈনিক । ছাত্র জীবন থেকেই জাতির জনকের আদর্শকে বুকে লালন করে আওয়ামী লীগের রাজনীতি করে আসছে। আওয়ামী লীগের আসন্ন সম্মেলনে শীর্ষ নেতৃত্বে মো: জয়নাল আবেদীন কে দেখতে চায় তৃণমূলের নেতা-কর্মীরা। তারা বলছেন, সৎ ও পরিচ্ছন্ন নেতা হিসেবে রাজনীতিতে আলাদা ইমেজ রয়েছে তার।  তিনি ঢাকা উত্তর ৪৭ নং ওয়ার্ডে আওয়ামী লীগের নের্তৃত্বে আসলে ওয়ার্ড আওয়ামীলীগ, যুবলীগ, ছাত্রলীগসহ অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠন ঐক্যবদ্ধ ভাবে কাজ করবে। দীর্ঘদিন ধারাবাহিক রাজনীতির সাথে জড়িত, মেধাবী, সুস্থ, স্বচ্ছ ও পরিচ্ছন্ন রাজনীতির এক উজ্জ্বল নক্ষত্র, পরিচ্ছন্ন রাজনৈতিক হিসেবে নিবেদিত, আর্দশবান, ত্যাগী ও  ঐতিহ্যগত ভাবে জাতির পিতার আদর্শে বিশ্বাসী এবং শেখ হাসিনার নেতৃত্বের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। অতীতে দলের জন্য অবদান ও বর্তমানে সাংগঠনিক কাজের দক্ষতা তুলে ধরছেন এই সেচ্ছাসেবক লীগ নেতার রাজনৈতিক সামাজিক কর্মকাণ্ড।

দৈনিক আজকের আলোকিত সকাল প্রতিনিধি কে তিনি বলেন- ক্ষুধা ও দারিদ্র্যমুক্ত সোনার বাংলা প্রতিষ্ঠার জন্য জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের স্বপ্ন পূরণে আমরা নিরলসভাবে কাজ করছি। বঙ্গবন্ধু দুঃখী মানুষের মুখে হাসি ফোটানোর জন্য সারা জীবন সংগ্রাম করে গেছেন। তিনি আরও বলেন, ১৯৯৬ সালে আওয়ামী লীগ সরকার ২১ বছর পর ক্ষমতায় আসে। এ সময় বাংলাদেশ খাদ্যে স্বয়ংসম্পূর্ণ দেশে পরিণত হয়েছিল। কিন্তু ২০০১ সালে বিএনপি-জামায়াত চক্র ক্ষমতায় এলে আবার দেশে খাদ্য ঘাটতি শুরু হয়।  বিএনপি-জামায়াতের শাসনামলে সন্ত্রাসবাদ, জঙ্গিবাদে মদত ও  পাঁচবার দুর্নীতিতে বাংলাদেশ চ্যাম্পিয়ন হয়েছিল। বিএনপি-জামায়াতের দুর্বৃত্তায়ন ১/১১ রাজনৈতিক পরিবর্তন ডেকে এনে দুই বছরের জন্য সামরিক সমর্থিত অন্তর্র্বতীকালীন সরকার প্রতিষ্ঠার সুযোগ করে দিয়েছিল। গত ১০ বছরে বাংলাদেশে ব্যাপক আর্থ-সামাজিক উন্নয়ন ঘটেছে। দুর্ভিক্ষ, ঘূর্ণিঝড় এবং জলোচ্ছ্বাসের ভাবমূর্তি মুছে ফেলেছে, যা বাংলাদেশকে বিশ্বে উন্নয়নের রোল মডেল হিসেবে তুলে ধরেছে।

স্বেচ্ছাপ্রণোদিত হয়ে বিনা বেতনে যে ব্যক্তি সেবা দান করেন, তিনি স্বেচ্ছাসেবক। আওয়ামী লীগের সকল সমাবেশে স্বেচ্ছাসেবকের কাজ করছেন তিনি। আওয়ামী লীগের যেকোনো কর্মসূচি, বিভিন্ন দিবসের কর্মসূচি পালন, বন্যায় ত্রাণ ও ডেঙ্গু সচেতনতায়ও কাজ করেছেন। বিএনপি-জামায়েত শিবিরের নৈরাজ্য প্রতিবাদে বিক্ষোভ মিছিল ও প্রতিবাদ সভা-সমাবেশ, রাজপথে আন্দোলন সংগ্রাম করে আসছে প্রতিনিয়ত।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




কপিরাইট © ডেইলি আলোকিত সকাল - সর্বসত্ত্ব সংরক্ষিত