শিরোনাম :
গাজীপুরে ধর্ষণ চেষ্টার অভিযোগে সৎবাবা গ্রেফতার ৫ম ধাপের মনোনয়ন ফরম কাল থেকে বিক্রি করবে আ.লীগ ; জমাদানের শেষ তারিখ ১ ডিসেম্বর ফরিদপুরে মোটর সাইকেল চোর চক্রের ৫ সদস্য আটক ঝিনাইদহে কৃষককে গলা কেটে হত্যা মানুষের সেবায় রক্তের প্রয়োজনে নবপুষ্প ব্লাড ফাউন্ডেশন লালমনিরহাটের দৈখাওয়ায় মিথ্যা অভিযোগ ও সংবাদ প্রকাশের প্রতিবাদে মানববন্ধন সিরাজগঞ্জে শাহজাদপুরে নব নির্বাচিত এমপি প্রফেসর মেরিনা জাহান কবিতাকে ফুলেল শুভেচছা ঠাকুরগাঁওয়ে তাড়া খেয়ে মরলো নীলগাই লক্ষ্মীপুরে স্বেচ্ছাসেবীদের ভালোবাসায় সিক্ত হারুন-নাহার দম্পত্তি ফরিদপুরে হুমায়ূন স্মরণ উৎসব ও ক্যামেরার কবি আলোকচিত্রী নাসির আলী মামুনের সম্বর্ধনা অনুষ্ঠিত
জাতীয় স্মৃতি-সৌধ গেটের আশপাশের ফুটপাতে ব্যাপক চাঁদাবাজি; দেখার কেউ নেই!

জাতীয় স্মৃতি-সৌধ গেটের আশপাশের ফুটপাতে ব্যাপক চাঁদাবাজি; দেখার কেউ নেই!

বিপ্লব শেখ : সাভার উপজেলায় আশুলিয়া থানা-ধীন ঢাকা-আরিচা মহা-সড়কের কোল ঘেষে অবস্থিত জাতীয় স্মৃতি সৌধ। ত্রিশ লক্ষ বীর বাংগালী শহিদের রক্তের বিনিময়ে অর্জিত স্বাধীন বাংলাদেশ। পাকিস্থানি বর্বর হানাদার দের হাত থেকে বাংলাদেশ ও দেশের মাটিকে রক্ষা করতে যে সকল দেশ প্রেমিকগণ নিজেদের জীবন বলিদান করে গেছেন, তাদের সম্মার্নাথে এবং শহীদ বীর মুক্তি-যোদ্ধাদের -স্বরণে নির্মিত এই স্মৃতি সৌধের মূল ফটকের সামনে ফুটপাত গুলো র্দীঘদিন যাবৎ হকার্সদের দখলে। কাপড়ের দোকান, ফলের দোকান,ফুচকা, চটপটি ও ফলের দোকান সহ রয়েছে অনন্য দোকান ব্যবসা প্রতিষ্ঠানও। কুরগা রোড এর মাথা থেকে প্রায় নিরিবিলি পযর্ন্ত মহাসড়কে রয়েছে প্রায় ২৫০ হইতে ৩০০ টি ভ্রাম্যমান দোকান। এদেরকে পূজি করে জাতীয় স্মৃতি-সৌধ এলাকায় চাঁদা বাজী করে আসছে একটি অসাধু মহল।
দোকান মালিক (হকার্স)দের কাছে জানা যায় মোঃ মাসুদ (৪০), মোঃ রতন(৪৭) মোঃ রবি (৪৫), সহ ৫/৬ জন, প্রতি দোকান থেকে শুক্রবারে ১০০টাকা,অনন্য দিন ৫০ টাকা, প্রতি ভ্যান থেকে ২০০টাকা হারে চাদা আদায় করে প্রতি মাসে হাতিয়ে নিচ্ছে লক্ষ লক্ষ টাকা। তারা দৈনিক আজকের আলোকিত সকাল কে আরো বলেন, আমরা তাদের কাছে জিম্মি। ফুটপাতে ব্যবসা করতে হলে বাধ্য হয়ে-ই বাধ্যতা মূলক টাকা দিতে হয়।
এব্যাপারে জানতে চাইলে মোঃ মাসুদ জানায়: এই ফুটপাতে তার নিজেরও দুইটি দোকান রয়েছে। তার নিজের দোকান সহ আত্বিয় স্বজনদের দোকান রয়েছে সেই সুবাদে সবার নিকট থেকে টাকা উঠিয়ে বিদ্যুৎ বিল সহ অনন্য অনেক-কে ম্যানেজ করতে হয়। তিনি কোন প্রকার কোন চাঁদা বাজী করে না বা, কাউকে কোন চাঁদা দেয় না।
স্মৃতি সৌধের দ্বায়িত্ব রত অফিসার(সাব- সহকারী ইন্জিনিয়র) মিজানুর রহমান গণমাধ্যমকে জানায়, স্মৃতি সৌধের চারপাশ দেওয়াল দিয়ে ঘিরে রাখা রয়েছে। দেওয়ালের বাহিরে বা, গেইটের বাহিরে কি হয় এগুলো দেখার দ্বায়িত্ব আমার নয়। তবে মাবিক দিক থেকে বিচার করে মানবতার দায় বদ্ধতার কারনে অনেক সময় নজরদারি করে থাকি। পুলিশ ক্যাম্পের পুলিশদের কোন দ্বায়িত্ব অবশ্যই থাকার কথা। তাদেরকে সারাক্ষন ঐ ফুটপাত দিয়েই চলাফেরা করতে দেখা যায়। স্মৃতি সৌধে তাদের কোন কারনে রাখা হয়েছে এটাই তো জানা নেই।
এলাকা বাসী সূত্রে-খোঁজ নিয়ে জানা যায়, এদের নেপথ্যে রয়েছে রাজনৈতিক নেতা ও জনপ্রতিনিধিদের ছত্রছায়া। ফুটপাতের চাদাবাজি সহ বিভিন্ন অপরাধের সংবাদ বিভিন্ন গণমাধ্যমে একাধিকবার সংবাদ প্রকাশ হয়েছে। বিভিন্ন সময় উচ্ছেদ অভিযান ও হয়েছে কিন্তু কোন এক অদৃশ্য কারণে ফুটপাত দখলমুক্ত হয় না। এই একই অবস্থা রয়ে যায়। পর্ব (১)

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




কপিরাইট © ২০২১ || দি ডেইলি আজকের আলোকিত সকাল - সর্বসত্ত্ব সংরক্ষিত