মৌলভীবাজার জেলার সংক্রমনের হার ৩৬ দশমিক ১৮ শতাংশ

মৌলভীবাজার জেলার সংক্রমনের হার ৩৬ দশমিক ১৮ শতাংশ

তিমির বনিক, মৌলভীবাজার জেলা প্রতিনিধিঃ
মৌলভীবাজার জেলায় প্রতিদিনই ভয়াবহ রুপ ধারন করে আশঙ্কাজনকভাবে বাড়ছে করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা। গত ২৪ ঘণ্টায় জেলায় করোনা শনাক্ত হয়েছেন আরও ১৪০ জন। রোববার (১ আগস্ট) সিভিল সার্জন অফিসের কোভিড-১৯ কোয়ারেন্টাইন ও আইসোলেশনের দৈনিক প্রতিবেদন থেকে এ তথ্য জানা গেছে।
সেখানে বলা হয়েছে, সিলেটের শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের পিসিআর ল্যাবে মৌলভীবাজার জেলার ৩৮৭ জনের নমুনা পরীক্ষা করে ১৪০ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে। শনাক্তের হার ৩৬ দশমিক ১৮ শতাংশ। এই হার এর একদিন আগে ৪৬ দশমিক ৬  শতাংশ ছিলো, সে তুলনায় একদিনের ব্যবধানে করোনা শনাক্তের হার কমেছে। এ নিয়ে জেলায় মোট আক্রান্ত ৫ হাজার ৫৫৯ জন। ২৪ ঘণ্টায় জেলায় ৪৮ জন সুস্থ, মৃত্যুবরণ করেননি কেউ।
নতুন শনাক্ত ১৪০ জনের মধ্যে মৌলভীবাজার ২৫০ শয্যা হাসপাতালের ২৭ জন, জুড়ীর ৪ জন, শ্রীমঙ্গলের ২ জন, কমলগঞ্জের ২২ জন, বড়লেখার ৩৫ জন, কুলাউড়ার ৪৬ জন, রাজনগরের ৪ জন। এ নিয়ে জেলায় ৫ হাজার ৫৫৯ জনকে করোনায় আক্রান্ত হিসেবে শনাক্ত করা হয়েছে। এদিকে গত ২৪ ঘণ্টায় সুস্থ হওয়া ৪৮ জনের মধ্যে ২৫০ শয্যা সদর হাসপাতালের ২ জন, জুড়ীর ২৪ জন, শ্রীমঙ্গলের ১২ জন, কমলগঞ্জের ৯ জন ও রাজনগরের ১ জন। এতে জেলায় মোট সুস্থ হয়ে ওঠা রোগীর সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৩ হাজার ৮১২ জনে।
এছাড়া গত ২৪ ঘণ্টায় করোনা আক্রান্ত হয়ে মৌলভীবাজারে মৃত্যুবরণ করেননি কেউ। তবে এর আগের সব মৃত্যু নিয়ে মৌলভীবাজারে মোট ৬০ জন করোনা রোগীর মৃত্যু হয়েছে। যাদের মধ্যে রাজনগর ৪ জন, কুলাউড়া ৩ জন, বড়লেখায় ৩ জন, কমলগঞ্জে ৩ জন, শ্রীমঙ্গলে ১০ জন, জুড়ী ৪ এবং সদর হাসপাতালের ৩৩ জন রয়েছেন।
এদিকে সারাদেশেই বাড়ছে করোনাভাইরাসের প্রকোপ। শনিবারের (৩১ জুলাই) আপডেট অনুযায়ী, বাংলাদেশে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনাভাইরাসে সংক্রমিত হয়ে আরও ২১৮ জনের মৃত্যু হয়েছে। একই সময়ে নতুন করোনা রোগী হিসেবে শনাক্ত করা হয়েছে ৯ হাজার ৩৬৯ জনকে। দেশে এখন পর্যন্ত করোনায় ২০ হাজার ৬৮৫ জন মারা গেছেন। অন্যদিকে মোট আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১২ লাখ ৪৯ হাজার ৪৮৪ জনে।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




কপিরাইট © ২০২১ || দি ডেইলি আজকের আলোকিত সকাল - সর্বসত্ত্ব সংরক্ষিত