ট্রেলারে জমজমাট ‘ম্যাট্রিক্স ৪’, আসছে ডিসেম্বরে

ট্রেলারে জমজমাট ‘ম্যাট্রিক্স ৪’, আসছে ডিসেম্বরে

৯ সেপ্টেম্বর মুক্তি পেয়েছে এ বছরের সবচেয়ে প্রতীক্ষিত হলিউড সিনেমা ‘দ্য ম্যাট্রিক্স রেজারেকশনস’-এর ট্রেলার। ‘দ্য ম্যাট্রিক্স’ সিরিজের অন্য তিনটি সিনেমার মতো এই সিনেমাতেও নিও ও ট্রিনিটি চরিত্রে জনপ্রিয় অভিনেতা কিয়ানু রিভস ও অভিনেত্রী ক্যারি অ্যান মস-কে দেখা যাবে। প্রায় দুই দশক আগে ১৯৯৯ সালে মুক্তি পায় বৈজ্ঞানিক কল্পকাহিনী নির্ভর সিনেমা দ্য ম্যাট্রিক্স। মুক্তির পর পরই সিনেমাটি বেশ জনপ্রিয়তা অর্জন করে। সেই সময়ে এই সিনেমাটি বক্স অফিস থেকে ৪৬৫.৩ মিলিয়ন মার্কিন ডলার আয় করেছিলো। এরপর ২০০৩ সালে এই সিরিজের পরের দুটি সিনেমা ‘দ্য ম্যাট্রিক্স রিলোডেড’ এবং ‘দ্য ম্যাট্রিক্স রেভ্যুলেশন্স’। ‘দ্য ম্যাট্রিক্স রেভ্যুলেশন্স’ সিনেমায় নিও ও ট্রিনিটি মারা যায়। ‘দ্য ম্যাট্রিক্স’ সিনেমার কাহিনি যেখান থেকে শুরু হয়েছিলো এই সিনেমার কাহিনি ঠিক সেখানেই ফিরে যাবে। অর্থাৎ ‘দ্য ম্যাট্রিক্স রেজারেকশনস’ সিনেমায় ‘দ্য ম্যাট্রিক্স’ সিনেমার কাহিনীর পুনরুত্থান ঘটবে। ‘দ্য ম্যাট্রিক্স রেজারেকশনস’-এর ট্রেলারের শুরুতে দেখা যায় যে নিও পুনরায় তার থমাস অ্যান্ডারসন সত্তায় ফিরে যায় এবং সে ম্যাট্রিক্স সম্পর্কে সব ভুলে যায়। এমনকি সে ট্রিনিটিকেও চিনতে পারে না এবং ট্রিনিটিও তাকে চিনতে পারে না। এ ছাড়াও থমাস অ্যান্ডারসন তার স্বপ্নে অদ্ভুত সব জিনিস দেখা শুরু করে। এই স্বপ্নগুলো নিয়ে তার মনে নানা রকমের প্রশ্ন জাগে, তাই সে এই সকল স্বপ্নের রহস্য উন্মোচন করার চেষ্টা শুরু করে। এই সিনেমায় কিছুটা ভিন্ন ভাবে তার সাথে মরফিয়াস-এর দেখা হবে। মরফিয়াস আবারও থমাস অ্যান্ডারসনের সামনে নীল ও লাল রঙের দু’টি ক্যাপসুল নিয়ে হাজির হয়। থমাস যদি নীল রঙের ক্যাপসুলটি খায় তাহলে সে ম্যাট্রিক্সে মধ্যে আটকা পড়ে থাকবে এবং বাস্তব পৃথিবী সম্পর্কে তার কখনো জানা হবে না। আর সে যদি লাল রঙের ক্যাপসুটি খায় তাহলে সে বাস্তব পৃথিবী সম্পর্কে জানতে পারবে এবং তার জন্য জ্ঞানের দুয়ার খুলে যাবে। ‘দ্য ম্যাট্রিক্স’ সিনেমার মতো এখানেও থমাস অ্যান্ডারসন লাল ক্যাপসুলটি বেছে নিয়ে বাস্তব পৃথিবীর রহস্য উন্মোচনের কাজে নামবে। এ ছাড়াও ‘দ্য ম্যাট্রিক্স’ সিনেমায় রুপক অর্থে যে জিনিসগুলো ব্যবহার করা হয়েছে সেগুলো ‘দ্য ম্যাট্রিক্স রেজারেকশনস’ সিনেমাতেও দেখানো হয়েছে। তাছাড়া ‘দ্য ম্যাট্রিক্স’ সিনেমায় নিও এবং মরফিয়াসের বিখ্যাত ফাইটিং সিনটিও এখানে কিছুটা ভিন্ন ভাবে উপস্থাপন করা হবে। ২০২০ সালে ৩রা ফেব্রুয়ারি যুক্তরাষ্ট্রের স্যান ফ্রান্সিসকোতে ‘দ্য ম্যাট্রিক্স রেজারেকশনস’ সিনেমার শুটিং শুরু হয়। স্যান ফ্রান্সিসকো ছাড়াও জার্মানি ও যুক্তরাষ্ট্রের শিকাগোতে এই সিনেমাটি শুট করা হয়েছে। তবে করোনা মহামারির কারণে ২০২০ সালের মার্চ মাসের পর সিনেমাটির শুটিং স্থগিত করা হয়। তারপর একই বছরের আগস্টে জার্মানির বার্লিনে সিনেমাটির শুটিং শুরু হয়। ২০২০ সালের নভেম্বরে সিনেমাটির শুটিং শুরু হয়। ‘দ্য ম্যাট্রিক্স’-এর চতুর্থ পর্বে কিয়ানু রিভস ও ক্যারি অ্যান মস-কে ছাড়াও প্রিয়াঙ্কা চোপড়া, নিল প্যাট্রিক হ্যারিস, জেসিকা হেনউয়িক সহ একঝাঁক জনপ্রিয় হলিউড তারকা। এই সিনেমায় লিজেন্ডারি মরফিয়াস চরিত্রে অভিনয় করবেন আমেরিকান অভিনেতা ইয়াইয়া আবদুল মাতিন। ‘দ্য ম্যাট্রিক্স’-এর পূর্বের তিনটি সিনেমায় এই চরিত্রে অভিনয় করেছিলেন লোরেন্স ফিসবার্ন, তবে তাকে নতুন সিনেমাটিতে দেখা যাবে না।দ্য ম্যাট্রিক্স রেজারেকশনস’ সিনেমাটি পরিচালনা করেছেন লানা উইচোস্কি। এ বছরের ২২ ডিসেম্বর যুক্তরাষ্ট্র-সহ বিশ্বের আরও কয়েকটি দেশের প্রেক্ষাগৃহগুলোতে মুক্তি পাবে ‘দ্য ম্যাট্রিক্স রেজারেকশনস’। প্রেক্ষাগৃহের পাশাপাশি এই সিনেমাটি জনপ্রিয় অনলাইন স্ট্রিমিং প্ল্যাটফর্ম ‘এইচবিও ম্যাক্স’-এ মুক্তি পাবে।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




কপিরাইট © ২০২১ || দি ডেইলি আজকের আলোকিত সকাল - সর্বসত্ত্ব সংরক্ষিত