শিরোনাম :
সাইবার বুলিং বাড়ছে, বিপদ বলয়ে শিশু-কিশোররা জন্ম ও মৃত্যুবরণ করলে ৪৫ দিনের মধ্যে নিবন্ধন করার আহবান :স্থানীয় সরকার বিভাগের উপসচিব ইন্দোশিয়ার রাজধানী জাকার্তা থেকে  নুসানতারা কমলগঞ্জে জলাশয়ে পাওয়া গেল এক নারীর মরদেহ দেশে ওমিক্রন শনাক্তের হার ঊর্ধ্বগামী, নতুন ঢেউ আছড়ে পড়ার শঙ্কা কমনওয়েলথ গেমস বাছাইয়ে বিজয়ী টাইগ্রেসরা পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের প্রস্তার নাকচ করে দিয়েছে তালেবান সরকার শিমুর হত্যার দায় স্বীকার করলো স্বামী নোবেল খুলনা দাকোপ স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের নার্সের অশোভন আচরণ , রোগীদের অভিযোগ শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ করে দেওয়ার মতো পরিস্থিতি এখনও তৈরি হয়নি : দীপু মনি
নানা অপরাধের সাথে জড়িত নামধারী ও কার্ডধারী সাংবাদিক আবু হাসান ! পর্ব-১

নানা অপরাধের সাথে জড়িত নামধারী ও কার্ডধারী সাংবাদিক আবু হাসান ! পর্ব-১

স্টাফ রিপোর্টার :
নানা অপরাধের সাথে জড়িত নামধারী ও কার্ডধারী সাংবাদিক আবু হাসান। কখনো সাংবাদিক, কখনো আইনের সহায়ক, আবার বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানে কিংবা ব্যক্তির কাছে দাবিকৃত চাঁদা না পেলে সংবাদ প্রকাশের হুমকিসহ বিভিন্নভাবে মানুষের সাথে প্রতারণা করে দাবড়ে বেড়াচ্ছেন। প্রশাসনের নাকের ডগায় আঙ্গুল দিয়ে একের পর এক অপরাধ করে বেড়াচ্ছেন। এছাড়া বিভিন্ন জেলায় নারীদের প্রতারণার ফাঁদে ফেলে একাধিক বিয়ে করে হাতিয়ে নিয়েছেন বিপুল অর্থ। এসব ভূয়া সাংবাদিকদের বিরুদ্ধে যথাযথ আইনী ব্যবস্থা না নেয়া হলে সাংবাদিক সমাজ বিলুপ্ত হয়ে যাবে বলে মন্তব্য করলেন সুশীল সমাজ।
খোঁজ নিয়ে জানা যায়, গাইবান্ধা জেলায় সুন্দরগঞ্জ থানার নিশ্চিন্তপুর গ্রামের রেজাউল আকন্দের সন্তান আবু হাসান। গত কয়েক বছর পূর্বে আবু হাসান চলে আসেন ঢাকায় । এরপর টঙ্গীর পাগাড় এলাকায় বসবাস করে গাড়ীর ড্রাইভার হিসেবে কাজ করতেন। এর কিছুদিন পর পুলিশি ঝামেলা থেকে রেহাই পেতে কিছু টাকার বিনিময়ে দৈনিক তালাশ টাইমস এর স্টাফ রিপোর্টার এর একটি কার্ড নেন। একটি অনলাইন পোর্টালের কার্ড হাতে পাওয়ার পর নিজেকে সাংবাদিক পরিচয় দিতে শুরু করেন। নেই সাংবাদিকতার কোন প্রশিক্ষণ, নেই একাডেমিক সনদ। নিউজ সম্পর্কে নেই কোনো ধারনা কিংবা নিউজ লিখতে না পারলেও নিজেকে সাংবাদিক পরিচয় দেন। এরপর গাড়ীর ড্রাইভার এর কাজ ছেড়ে সাংবাদিক পরিচয় দিয়ে বিভিন্নভাবে মানেুষের সাথে প্রতারণা করতে থাকেন। এমনকি নারী পিপাষু আবু হাসান নারীদের প্রতারণার ফাঁদে ফেলে একের পর এক বিয়ে করেন। নাম প্রকাশ্যে অনিচ্ছুক টঙ্গীর বেশ কয়েকজন স্থানীয় বাসিন্দা বলেন, আবু হাসান নিজেকে একজন সাংবাদিক পরিচয় দিয়ে চাঁদাবাজি করে বেড়াচ্ছেন। তার অত্যাচারে অতিষ্ঠ এলাকাবাসী। স্থানীয় প্রশাসন এসব ভূয়া ও নামধারী সাংবাদিকদের বিরুদ্ধে জরুরী ব্যবস্থা নেয়া উচিত। এবিষয়ে নামধারী ও কার্ডধারী সাংবাদিক আবু হাসান এর সাথে যোগাযোগ করলে তার বিরুদ্ধে আনিত সকল অভিযোগ মিথ্যা বলে দাবি করেন। এব্যাপারে গাজীপুর মেট্রোপলিটন পুলিশের ডিসি(অপরাধ দক্ষিণ) এর সাথে যোগাযোগ করলে তিনি বলেন, সাংবাদিক পরচিয় দিয়ে কেউ অপরাধ করলে,অবশ্যই তার বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে। এসব ভূয়াদের কোনো ছাড় নেই।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




কপিরাইট © ২০২১ || দি ডেইলি আজকের আলোকিত সকাল - সর্বসত্ত্ব সংরক্ষিত