শিরোনাম :
শৈলকুপায় আওয়ামী লীগের দু’পক্ষের সংঘর্ষ-বাড়ি ভাঙচুর, আহত ২২ সর্বগ্রাসী দুর্নীতি অর্থ পাচার ও নৈতিক অবক্ষয়ের বিরুদ্ধে “বদলে যাও বদলে দাও” শ্লোগান নিয়ে হানিফ বাংলাদেশী এখন মোরেলগঞ্জে খুলনার দাকোপে ১ কেজি গাঁজাসহ গ্রেফতার যুবক স্কুলছাত্রের সঙ্গে কলেজছাত্রীর প্রেম, বিয়েতে অনীহায় ধর্ষণ মামলা বিজেএমসি খুলনা আঞ্চলিক কার্যালয় যেন পশুর খামার,দেখার কেউ নেই রূপগঞ্জে সরকারী জমিসহ জোড়পূর্বক অন্যের জমি দখলের অভিযোগ  নেত্রকোণায় প্রধানমন্ত্রীর উপহারের ঘর পাচ্ছেন না ২ মুক্তিযোদ্ধা নাগরিক সেবা নগরবাসীর দোরগোড়ায় পৌঁছে দিতে খুলনাকে স্মার্ট সিটি হিসেবে গড়ে তুলতে চাই-সিটি মেয়র খুলনায় পরিবেশ বিষয়ক সচেতনতা বৃদ্ধির লক্ষ্যে আলোচনা সভা  দিঘলিয়া থানা অফিসার ইনচার্জ মোঃ আহসান উল্লাহ চৌধুরী ও এসআই আজিজ মাহমুদ খুলনা জেলা শ্রেষ্ঠ অফিসার নির্বাচিত
আমি থাকতে চাই সকলের মাঝে থাকবে সকলে হাসিখুশি -আলহাজ্ব মোঃ জাহাঙ্গীর আলম

আমি থাকতে চাই সকলের মাঝে থাকবে সকলে হাসিখুশি -আলহাজ্ব মোঃ জাহাঙ্গীর আলম

এম আনিসূর রহমান: মুখে সু-মিষ্টি হাসিটা মনের অজান্তে কখন আসে, যখন মানবসেবক বা মানবতার ফেরিওয়ালা, জনবান্ধব হিসাবে নিজেকে তৈরী করা সম্ভব হয়। আমার দেখা তেমন একজন সদা হাস্যজ্জল রোমান্টিক এক সদালাপি মানুষ ৩৭ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর আলহাজ্ব মোঃ জাহাঙ্গীর আলম। তার এলাকার বৃদ্ধা আবাল বনিতা ছোট বড় মুচি মাতবর কোন প্রকার ভেদাভেদ দেখতে পাইনা তার ভেতরে। সমান তালে সবার সাথে চলাফেরা। যেই এলাকায় ছোট থেকে বড় হয়েছেন, বর্তমানে দুইবারের সফল কাউন্সিলর হওয়ার পরও সেই ছেলেবেলার খেলার তালের মত করে এলাকার উন্নয়নে ছুটে চলা,অর্পিত দায়িত্ব পালন করা, কোনোতায় যেন ঘাটতি নেই। ইতিমধ্যে তার নিজ ৩৭ নং ওয়ার্ডের এলাকাবাসীর কাছে আস্থাভাজন হিসেবে পরিচিতি লাভ করেছেন এই হাস্যজ্জল মানুষটি। আদর্শ ও ন্যায় নীতির মধ্যে থেকে এলাকার মানুষের পাশে থাকাই এ আদর্শবান মানুষটির লক্ষ্য। কোন কিছুর লোভ লালসা আর হিংসা তাকে আক্রমন করতে পারেনি। এসব কারনেই এলাকার প্রশংসার পাত্র তিনি। সাংবাদিক বান্ধব এই মানুষটি স্থানীয় সাংবাদিকদের খুবই প্রিয় ব্যাক্তিত্ব মোঃ জাহাঙ্গীর আলম। তিনি ৩৭ নং ওয়ার্ডের সফল কাউন্সিলর। ছাত্র জীবন থেকেই আওয়ামী লীগের রাজনীতির সাথে জড়িত তিনি। বাবার আদর্শের হাতে খড়িতেই তিনি রাজনীতিতে যুক্ত হন। শিক্ষা জীবনে ছিলেন একজন মেধাবী ছাত্রনেতা। তেজগাঁও কলেজে পড়াশোনা করা কালীন সময়ে বঙ্গবন্ধুর আদর্শ হিসেবে জননেত্রী বর্তমান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার প্রতি তার রয়েছে আনুগত্য। পাশাপাশি সাবেক ছাত্রনেতা থাকা কালীন তার রয়েছে আওয়ামীলীগের পক্ষে রাজপথে আন্দোলন সংগ্রামের ব্যাপক সুখ্যাতি ও সুনাম।পারিবারিক ভাবে দির্ঘদিন বিদেশ থাকলেও মোঃ জাহাঙ্গীর আলম ৩৭নং ওয়ার্ডের সাধারন মানুষের ভালবাসায় সিক্ত হয়ে ঢাকা মহানগর উত্তর সিটি করপোরেশন নির্বাচনে অংশ নেন এবং টানা দ্বিতীয়বার সফল কাউন্সিলর হিসাবে নির্বাচিত হন।বর্তমানে আওয়ামীলীগের এই ওয়ার্ডের গুরুত্বপূর্ণ পদের দায়িত্ব সফল ভাবে পালন করছেন। বাড্ডাবাসীর তথা তরুণ সমাজের কাছে সে আইডল তার মেধা সুস্হ চিন্তা চেতনা কাজে লাগিয়ে সামাজিক কার্যক্রমের মাধ্যমে ব্যাপক গ্রহণ যোগ্যতা অর্জন করেছেন। তরুণ উদীয়মান জনতার কাউন্সিলর বাড্ডা এলাকার যুব সমাজের জন্য সামাজিক সংগঠন, খেলাধূলা-সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের মাধ্যমে আনন্দ-বিনোদনের ব্যবস্থা করেন। এছাড়াও তিনি সমাজে বসবাসকারী সাধারণ নাগরিকের জীবনের নিরাপত্তার জন্য ৩৭ নং ওয়ার্ডের প্রতিটি রাস্তার প্রবেশ মুখে গেইট নির্মাণসহ নিজ উদ্যোগে এ সকল সামাজিক কার্যক্রমে নিজেকে নিয়োজিত রেখেছেন। ৩৭ নং ওয়ার্ড আওয়ামীলীগ এর রাজনৈতিক পরিসরে মোঃ জাহাঙ্গীর আলমের রয়েছে ব্যাপক গ্রহণ যোগ্যতা। ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে ৩৭নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের প্রার্থী হিসেবে বিশাল জন সমর্থন নিয়ে বিপুল ভোটে নির্বাচিত হন তিনি। বর্তমানে এলাকাবাসীর কাছে ব্যাপক জনপ্রিয় ব্যক্তি হিসেবে পরিচিতি লাভ করেছেন আলহাজ্ব মোঃ জাহাঙ্গীর আলম। সরকারী বরাদ্দের অপেক্ষা না করে,নানা বিষয়ে সরকারী সুবিধা বন্ঞ্চিত থেকেও তিনি দলমত নির্বিশেষে সাধারণ নাগরিকদের সেবা নিশ্চিত করতে আপ্রাণ চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন। বিশেষ করে পরিচ্ছন্ন কার্যক্রম, মশকনিধন, ড্রেনেজ ব্যবস্থা উন্নয়নের মাধ্যমে জলবদ্ধতা দুরীকরণসহ বিভিন্ন নাগরিক সমস্যা সমাধানের পরিকল্পনা মাফিক আদর্শ ওয়ার্ড গড়ার প্রত্যশা নিয়ে উন্নয়ন কাজ চালিয়ে যাচ্ছেন। বাড্ডা থানাধীন ৩৭নং ওয়ার্ডকে আদর্শ এলাকায় রুপান্তরিত করতে স্থানীয় এমপি আলহাজ্ব এ কে এম রহমতউল্লা ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনের মাননীয় মেয়র আতিকুল ইসলাম আতিক সহ সমাজে বসবাসকারী সকলের সহযোগীতা প্রত্যাশা করেন। তার পিতা আলহাজ্ব হাছান উদ্দিন বঙ্গবন্ধুর আদর্শে একজন অকুতোভয় বীর। ৩৭ নং ওয়ার্ড বাড্ডা থানা আওয়ামীলীগের একজন সক্রিয় রাজনৈতিক ব্যাক্তিত্ব। তিনি আমৃত্যু শিক্ষা, সামাজিক ও রাজনীতির সাথে জড়িত আছেন। ৩৭ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর মোঃ জাহাঙ্গীর আলম বাবার আদর্শকে সামনে রেখে বিভিন্ন সামাজিক সংগঠন ও রাজনৈতিক সংগঠনের মাধ্যমে সমাজের দুঃখি মানুষের পাশে থেকে কাজ করে যাচ্ছেন। তিনি শুধু কাউন্সিলর হিসেবেই নয় স্থানীয় আওয়ামী লীগের রাজনীতিতে তৃণমূল নেতা কর্মীদের কাছে তার গ্রহণ যোগ্যতা উল্লেখযোগ্য। বাড্ডা থানা এলাকার স্থানীয় বাসিন্দারা এ প্রতিবেদককে জানান, যে কোন প্রয়োজনে মোঃ জাহাঙ্গীর আলম কে এলাকাবাসী তাদের পাশে পান। বাড্ডা থানার সাধারণ মানুষের মতে, দলমত নির্বিশেষে যে কোন মানুষই বিপদে-আপদে তার সহযোগীতা পেয়ে থাকেন। মোঃ জাহাঙ্গীর আলম কাউন্সিলর নির্বাচিত হওয়ার পর এক-দেড় বছরের মধ্যে তার এলাকাকে পরিকল্পিতভাবে সুসজ্জিতকরে তোলার চেষ্টা অব্যাহত রেখেছে দরকার সকলের সহযোগিতা। তবে সম্প্রতি গত বর্ষা মৌসুমে এলাকার বিভিন্ন অংশের ওয়াসার ড্রেনেজ লাইন বন্ধ হয়ে রাস্তাঘাট পানিতে ডুবে যাওয়ায় এলাকার পরিবেশ অনেকাংশে বিনষ্ট হয়ে পড়েছিল। এ ব্যাপারে কাউন্সিলর মোঃ জাহাঙ্গীর আলম বলেন, যত দ্রুত এবার যাতে অবস্থা সৃষ্টি না হয় সে জন্য যতটা সম্ভব ওয়াসার ড্রেনেজ লাইনের সমস্যা সমাধান করা হবে। আমার ওয়ার্ডে কোন ধরনের সমস্যায় সাধারন মানুষ ভুক্তভোগী হোক এটা আমি চাই না। এছাড়াও ওয়াসার ড্রেনেজ লাইনের কাজ চলছে। খুব দ্রুত এ সমস্যা থেকে এলাকাবাসী পরিত্রান পাবে বলে তিনি জানান। এলাকায় উন্নয়নের চিত্রঃ সরেজমিন অনুসন্ধানে দেখা গেছে, বাড্ডা থানার ৩৭ নং ওয়ার্ড এলাকার চিত্র অনেকটাই পাল্টে দিয়েছেন কাউন্সিলর মোঃ জাহাঙ্গীর আলম। ঢাকা দুই সিটি কর্পোরেশনের বিভিন্ন ওয়ার্ডের চাইতে তার ওয়ার্ড অনেকটা ব্যতিক্রম। সব স্থান থেকে এখানে উন্নয়নের চিত্র আলাদা। উদ্দ্যেগ থাকলে সব কিছুই সম্ভব তার প্রমান এই ওয়ার্ডের কাউন্সিলর মোঃ জাহাঙ্গীর আলম। এই ওয়ার্ডের প্রতিটি গলির রাস্তাঘাট মেরামত সম্পন্ন করতে কার্যক্রম চলছে। ড্রেনেজ ব্যবস্থা ও ফুটপথে সাধারন মানুষের হাটার নির্ভরযোগ্য স্থান নিশ্চিন্তে হাটতে পারে সেই উদ্যোগ আছে তার। জলবদ্ধতা নিরসনে বৃহৎ প্রকল্প গ্রহনে ইতিমধ্যে পোষ্ট অফিস রোড, পাঁচতলা বাজার, পূর্ববাড্ডা কবরস্হান রোডের পরিত্যক্ত দির্ঘ জটিল সমস্যার অনেক কাজ সমাধান হয়েছে। রাস্তা প্রসস্হ্য করণ, পানির সমস্যা, এছাড়া ওয়ার্ডের রাস্তাঘাট ও অলিতে গলিতে ডিজিটাল এলইডি বাতি স্থাপন করার বিষয়টি গুরুত্বপূর্ণ ভাবে তিনি ওয়াকিবহাল ।এছাড়াও এলাকাকে পরিছন্ন রাখতে তিনি নিজ উদ্দ্যেগে পরিস্কার পরিছন্নতা অভিযান পরিচালনা করেন। এলাকায় বিভিন্ন ভেজাল বিরোধী অভিযানেও তিনি সংক্রিয় ভূমিকা পালন করছেন প্রসাশনের সহায়তায়। সাধারণ মানুষের মৌলিক অধিকার বাস্তবায়নের লক্ষে কৌশলগত দিক পরামর্শের মাধ্যমে কাজে লাগিয়ে ৩৭ নং ওয়ার্ডের সকলের মূখেই হাসি ফুটাতে চান তিনি।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published.




কপিরাইট © ২০২১ || দি ডেইলি আজকের আলোকিত সকাল - সর্বসত্ত্ব সংরক্ষিত