শিরোনাম :
শ্রীবরদীতে গ্রাম আদালত কার্যক্রম অগ্রগতি বিষয়ে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত নরেন্দ্র মোদি পূণরায় ক্ষমতায় এলে ৬ মাসের মধ্যে কাশ্মিরকে ভারতের অংশ করা হবে সিরাজগঞ্জে চলতি বছরই সেতু দিয়ে চলবে ট্রেন ইরানের প্রেসিডেন্ট হেলিকপ্টার দুর্ঘটনায় নিহত দিঘলিয়ায় মহি মল্লিকের নির্বাচনী নেতা-কর্মীদের বিরুদ্ধে মিথ্যা অভিযোগ দিয়ে পুলিশী হয়রানীর অভিযোগ  নওগাঁয় গ্রামীন ব্যাংকের মত বিনিময় সভা-অনুষ্ঠিত  আশুলিয়ার শিমুলিয়ায় ভূমিদস্যুদের দখলে অসহায় মাসুদের জমি  আপনি বাংলাদেশ ব্যাংকে ঢুকবেন কেন সাংবাদিকেদের প্রশ্ন ওবায়দুল কাদেরের ইসরাইল হেরে যাচ্ছে: সাবেক গোয়েন্দা উপ-প্রধান শ্রীবরদীতে গৃহবধূর ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার
আপাতত মেয়রের দায়িত্ব পাচ্ছেন না আতিক-তাপস

আপাতত মেয়রের দায়িত্ব পাচ্ছেন না আতিক-তাপস

মোল্লা তানিয়া ইসলাম তমাঃ ঢাকা উত্তর ও দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে বিপুল ভোটের ব্যবধানে জয় পেয়েছেন নৌকার দুই মেয়র প্রার্থী আতিকুল ইসলাম ও শেখ ফজলে নূর তাপস । কিন্তু ভোটে জিতলেও আপাতত মেয়র হিসেবে দায়িত্ব পাচ্ছেন না তারা। এজন্য আগামী মে মাস পর্যন্ত তাদের অপেক্ষা করতে হবে। তবে তার আগেই দুই সিটির নবনির্বাচিত মেয়র, সাধারণ ও সংরক্ষিত কাউন্সিলরদের ফলাফলের গেজেট প্রকাশ ও শপথ অনুষ্ঠান সম্পন্ন হয়ে যেতে পারে। নির্বাচন কমিশন (ইসি) সূত্র জানা যায়, এরইমধ্যে নবনির্বাচিতদের নাম-ঠিকানাসহ ফলাফল গেজেট আকারে প্রকাশের প্রস্তুতি চলছে । প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ শেষে কমিশনের অনুমোদনের জন্য চলতি সপ্তাহেই তা পাঠানো হতে পারে। আর শপথ অনুষ্ঠানের বিষয়টি তদারকি করবে স্থানীয় সরকার বিভাগ। এর আগে গেল শনিবার (১ ফেব্রুয়ারি) ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনে নৌকা মার্কায় ৪ লাখ ৪৭ হাজার ২১১ ভোট পেয়ে মেয়র পদে নির্বাচিত হন আতিকুল ইসলাম। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী ধানের শীষের প্রার্থী তাবিথ আউয়াল পান ২ লাখ ৬৪ হাজার ১৬১ ভোট। অন্যদিকে দক্ষিণ সিটি করপোরেশনে আওয়ামী লীগের নৌকা প্রতীক নিয়ে ৪ লাখ ২৪ হাজার ৫৯৫ ভোট পেয়ে বিজয়ী হন শেখ ফজলে নূর তাপস। তার প্রধান প্রতিদ্বন্দ্বী বিএনপির প্রার্থী ইশরাক হোসেন পান ২ লাখ ৩৬ হাজার ৫১২ ভোট। উত্তর সিটিতে আতিকুল আইনি বাধ্যবাধকতার কারণে মেয়র পদ ছেড়ে নির্বাচনে অংশ নিয়ে বিজয়ী হন । অপরদিকে দক্ষিণ সিটিতে মেয়রের দায়িত্বে থাকা সাঈদ খোকন এই নির্বাচনে অংশ না নেয়ায় তিনি এখন স্বপদে বহাল আছেন। ২০১৫ সালের ২৮ এপ্রিল উত্তর সিটিতে ভোট হওয়ার পর প্রথম সভা হয় ১৪ মে। সেই হিসাবে ২০২০ সালের ১৩ মে পর্যন্ত আর্গের নির্বাচিতরা স্বপদে বহাল থাকবেন। উত্তরে গেলবার মেয়র নির্বাচিত হয়েছিলেন আনিসুল হক। ২০১৭ সালের ৩০ নভেম্বর ৬৫ বছর বয়সে মারা যান তিনি। তার মৃত্যুতে অনুষ্ঠিত উপনির্বাচনে নির্বাচিত হয়ে উত্তরের মেয়র হিসেবে ৯ মাস দায়িত্ব পালন করেন আতিকুল। অন্যদিকে উত্তরের মতো দক্ষিণ সিটিতেও ২০১৫ সালের ২৮ এপ্রিল মেয়র নির্বাচিত হন সাঈদ খোকন। সেখানে প্রথম সভা হয় ১৭ মে। ফলে ২০২০ সালের ১৬ মে তার মেয়াদ শেষ হবে। নতুন দুই মেয়র আতিকুল ও তাপসের দায়িত্ব গ্রহণ প্রক্রিয়া বিষয়ে সাবেক নির্বাচন কমিশনার মো. আবদুল মোবারক জানিয়েছেন, বর্তমান কর্পোরেশনের প্রথম সভা থেকে পরবর্তী ৫ বছর মেয়াদ শেষ হওয়া পর্যন্ত নবনির্বাচিতদের অপেক্ষা করতে হবে। তবে তার আগে গেজেট প্রকাশ ও শপথ গ্রহণের অনুষ্ঠান হতে পারে।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




কপিরাইট © ২০২১ || দি ডেইলি আজকের আলোকিত সকাল - সর্বসত্ত্ব সংরক্ষিত