শিরোনাম :
“প্রেসিডেন্ট পুলিশ মেডেল (পিপিএম)- সেবা” পেলেন অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোঃ ফরহাদ সরদার সাভারে বিএনসিসির সেন্ট্রাল ক্যাম্পিংয়ের সম্মিলিত কুচকাওয়াজ ও ডিসপ্লে অনুষ্ঠিত এম এম আমিনুল ইসলামকে আয়ারল্যান্ড প্রতিনিধি হিসাবে নিয়োগ দান  লক্ষীপুরে ডিবির জালে যৌন কর্মীসহ ৫জন আটক রক্তবন্ধু সমাজকল্যাণ সংগঠনের ৩য় প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উপলক্ষে অভিভাবক এওয়ার্ড ও গুণীজন সম্মাননা সাভার উপজেলা পরিষদ ঢাকা-১৯ এর এমপিকে সংবর্ধনা নওগাঁর পুলিশ সুপার”প্রেসিডেন্ট পুলিশ মেডেল” (পিপিএম-সেবা) প্রাপ্তি বড়াইগ্রামে জাতীয় পরিসংখ্যান দিবস পালিত  মাদক নিয়ে  ট্রেন চালক সহ গ্রেপ্তার ৫  ভোলায় রওশন আরা ও রাব্বী হত্যার বিচারের দাবীতে মানববন্ধন 
একটি সেলফিতেই জানা যাবে হৃদরোগ রয়েছে কিনা?

একটি সেলফিতেই জানা যাবে হৃদরোগ রয়েছে কিনা?

শরীরের হৃদযন্ত্রে চুপিসাড়ে কোনও রোগ বাসা বেঁধেছে কিনা, তা জানা যাবে একটা সেলফির মাধ্যমেই। চিকিৎসকের কাছে একটা সেলফি পাঠালেই এবার জানতে পারবেন আপনার হৃদযন্ত্রের অবস্থা। এক নতুন সমীক্ষা বলছে করোনারি আর্টারি ডিজিস বা সিএডি নির্ণয় করা সম্ভব মানুষের মুখের ছবি দেখে। ইউরোপিয়ান হার্ট জার্নালে এই সমীক্ষা প্রকাশিত হয়েছে।

গবেষণা জানাচ্ছে হৃদরোগের লক্ষ্মণ চিহ্নিত করবে ডিপ লার্নিং কম্পিউটার। অ্যালগরিদম নামে ওই যন্ত্রটি যে কোনও ব্যক্তির মুখের চারটি ছবি দেখে সিএডি শনাক্ত করবে বলে জানাচ্ছেন গবেষকরা। এটা এক ধরণের স্ক্রিনিং টুল। এই টুলের ব্যাবহার করা হচ্ছে আর্টিফিশিয়াল ইন্টেলিজেন্সকে কাজে লাগিয়ে।

প্রথমে এক্ষেত্রে ফেস ডিটেক্ট বা মুখমন্ডলে চিহ্নিতকরণ করা হচ্ছে। যে ব্যক্তি সেলফি পাঠাচ্ছেন তাঁর কি কি চিকিৎসা চলছে, সে সম্পর্কে তথ্য যোগাড় করা হয়। এরপর মুখের ত্বকে করোনারি ডিজিজের কিছু নির্দিষ্ট চিহ্ন দেখে হৃদরোগের প্রকৃতি সম্পর্কে বলতে পারেন চিকিৎসকরা।

তবে চিকিৎসকের কাছে গিয়ে হৃদরোগ সম্পর্কে জানার পরামর্শই দিচ্ছেন গবেষকরা। এই পদ্ধতিতে কিছু ভুল ত্রুটি থাকতে পারে বলে জানাচ্ছেন তাঁরা। তাঁদের দাবি এই রকম পর্যবেক্ষণ যেহেতু আর্টিফিশিয়াল ইন্টেলিজেন্স ব্যবহার করে বের করা হচ্ছে, তা সবসময় পুঙ্খানুপুঙ্খ ভাবে সঠিক নাও হতে পারে।

চিনের বেজিংয়ে ফুয়াই হাসপাতাল, চিনা অ্যাকাডেমি অফ মেডিক্যাল সায়েন্স ও পিকিং ইউনিয়ন মেডিকাল কলেজের গবেষকরাও এই সমীক্ষা চালিয়েছেন। তবে তাঁরা বলছেন ক্লিনিক্যাল টেস্ট বেশি উপযোগী হৃদরোগ শনাক্তকরণে। এই স্ক্রিনিং পদ্ধতিটি সহজ, লাভজনক ও দ্রুত কার্যকরী বলে জানাচ্ছেন তাঁরা।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published.




কপিরাইট © ২০২১ || দি ডেইলি আজকের আলোকিত সকাল - সর্বসত্ত্ব সংরক্ষিত