শিরোনাম :
তজুমদ্দিনে মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান প্রার্থীর উপর হামলা,আটক ৩ সাগরে তৈরি হয়েছে ঘূর্ণিঝড় রিমাল, দশ নম্বর মহাবিপদ সংকেত  নাটোর ০৪ আসনের সংসদ সদস্যের বিরুদ্ধে সাংবাদিকদের মানববন্ধন কেন্দুয়ায় দু’পক্ষের সংঘর্ষে একজনের মৃত্যু  ফরিদপুরে জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলামের ‌ ১২৫ তম  জন্মবার্ষিকী পালিত  পূর্ব তিমুরের মতো খ্রিষ্টান দেশ বানানোর চক্রান্ত চলছে এমপি আনার হত্যায় জিহাদের লোমহর্ষক বর্ণনা সাগরে তৈরি হয়েছে ঘূর্ণিঝড় রিমাল, সাত নম্বর বিপদ সংকেত  বড়াইগ্রামে সাংবাদিকদের নিয়ে এমপি’র আপত্তিকর বক্তব্য, সর্বত্র ক্ষোভ   সাতক্ষীরায় পৃথক সড়ক দূর্ঘটনায় এক কলেজ ছাত্রসহ দুই জনের মৃত্যু
এখনও পুলিশের নির্দেশ অমান্য করে সলঙ্গাতে বখাটে স্টাইলে চুলকেটে দিচ্ছে নাপিতেরা

এখনও পুলিশের নির্দেশ অমান্য করে সলঙ্গাতে বখাটে স্টাইলে চুলকেটে দিচ্ছে নাপিতেরা

সিরাজগঞ্জ থেকে ফারুক আহমেদঃ সিরাজগঞ্জের সলঙ্গাসহ তিনটি উপজেলায় ছেলেদের চুলের স্টাইলে ভয় পাচ্ছে স্কুল, কলেজ শিক্ষার্থীরা বলে অভিযোগ উঠেছে। বখাটেদের চুলের একপাশ কাটা। তার ওপর মোটা করে কয়েকটি দাগ। কারো চুলের দুই পাশেই নেই, মাঝখানে উঁচু। কেউ আবার জেল মেখে সোজা করে রেখেছেন। সকাল হলেই সিরাজগঞ্জের সলঙ্গাসহ তাড়াশ, রায়গঞ্জ,উল্লাপাড়া এই তিনটি উপজেলার শহরের স্কুল-কলেজের সামনে দেখা যায় তাদের। এসব যুবকদের মেয়েরা বখাটে হিসেবে আখ্যায়িত করে। অনেক সময় তাদের দেখে ভয়ও পায় মেয়েরা।বখাটে স্টাইলে চুল কাটা বন্ধে উদ্যোগ নিয়ে সলঙ্গা থানার ভারপ্রাপ্ত ওসি জেড জেড তাজুল হুদা সেলুন মালিকদের নিয়ে বৈঠক করেন। তিনি সেলুন মালিকদের বখাটে স্টাইলে চুল কাটা থেকে বিরত থাকার নির্দেশ দেন। এর ফলে দুই-তিন দিন ধরে শহরের সেলুনগুলোতে স্টাইল করে চুল কাটা বন্ধ হয়েছিল। শিক্ষার্থীদের চুলের স্টাইল হবে মার্জিত- এ স্লোগান দিয়ে বিভিন্ন স্থানে প্রচারও শুরু করেছিল পুলিশ।পুলিশের একাধিক সূত্রে জানা যায়, সলঙ্গাসহ তিনটি উপজেলার শহর, গ্রামগঞ্জের হাট – বাজার গুলিতে প্রায় ১০ – ১৫ হাজারেরও বেশি  সেলুন রয়েছে। এসব সেলুনে যুবকরা নানা স্টাইলে চুল কাটেন। চুল কেটে তারা সকাল ৯ -১০ হলেই শহরের গ্রামগঞ্জের স্কুল ও কলেজের সামনে এসে আড্ডা দেয়। চুলের স্টাইল দেখে মেয়েরা ভয় পায়। চুলের এ ধরণের বখাটে স্টাইল চোখে পড়ে সলঙ্গা থানার ভারপ্রাপ্ত ওসি জেড জেড তাজুল হুদার। তিনি স্কুল ও কলেজপড়ুয়া কয়েকজন মেয়ের সাথে কথা বলে বখাটেপনা ও চুলের স্টাইলের ভয়ের কথা জানতে পারেন। অবশেষে তিনি সেলুন মালিকদের নিয়ে সম্প্রতি বৈঠক করেন। বৈঠকে তিনি সেলুন মালিকদের মার্জিতভাবে চুল কাটার পরামর্শ দেন।পুলিশ কর্মকর্তার এমন ভালো উদ্যোগ নেওয়ায় অভিভাবকরা অনেক খুশি হয়েছে। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক রৌহদাহ বেসরকারি উচ্চ  বিদ্যালয়ের দশম শ্রেণির এক ছাত্রী বলেন, ‘আমাদের স্কুলের সামনে স্কুল টাইমে কাল মোটরসাইকেল নিয়ে বিভিন্ন স্টাইলে চুল কাটা ছেলেরা এসে ঘোরাফেরা করে আমাদের দিস্টাব করে। তাদের দেখতে ভয় লাগে। শুধু চুল কাটাই নয়, অনেক ছেলে ইদানিং এমনভাবে দাড়ি রাখছেন, তা দেখেও ভয় লাগে।’তাড়াশ ঝুরঝুরি গ্রামের বেসরকারি মহিলা মাদ্রাসার কয়েকজন শিক্ষার্থী জানান, ‘ছেলেরা মনে করে স্টাইল করে চুল কাটলে তাদেরকে মেয়েরা পছন্দ করবে। কিন্তু তাদের উল্টোভাবে যে মেয়েরা অপছন্দ করে সেটা মনে হয় তারা জানেন না। বখাটে স্টাইলে চুল কাটা আমরাও পছন্দ করি না। আমাদের অভিভাবকরাও এটা মেনে নেয় না। আমরা চাই কলেজের সামনে এ ধরণের কোন বখাটে যেন আড্ডা দিতে না পারে, সেজন্য প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা করছি।’এ ব্যাপারে ভারপ্রাপ্ত ওসি জেড জেড তাজুল হুদা  বলেন, আমরা শহর ও গ্রামগঞ্জের বিভিন্ন স্কুল,  কলেজে ও মাদ্রাসার স্টুডেন্ট কমিউনিটি পুলিশিং ফোরামের সভা করেছি। এসব সভায় মেয়েরা অভিযোগ করেছেন ছেলেদের চুলের স্টাইল নিয়ে। এমনভাবে তারা চুল কাটে, যে দেখলে মেয়েরা ভয় পায়। আমরা বিষয়টি নিয়ে স্থানীয় সেলুন মালিকদের সংগঠন নরসুন্দর কমিটির লোকজনের সাথে বৈঠক করেছি। তাদের নির্দেশ দিয়েছি বখাটে স্টাইলে চুল যে না কাটা হয়। আমাদের সাথে তারাও একমত হয়েছেন। এ ঘটনার পর থেকে অভিভাবকরাও আমাদের উদ্যোগের প্রসংশা করেছেন। আমরা চাই শিক্ষর্থীদের চুলের স্টাইল হবে মার্জিত।’

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




কপিরাইট © ২০২১ || দি ডেইলি আজকের আলোকিত সকাল - সর্বসত্ত্ব সংরক্ষিত