শিরোনাম :
কারাগার থেকে মুক্তি পেয়েছেন মুফতি আমির হামজা নওগাঁয় সিভিল সার্জন সম্মেলনকক্ষে ভিটামিন “এ” ক্যাপসুল ক্যাম্পেইন অনুষ্ঠিত  এবার সিরাজগঞ্জে কাভার্ডভ্যানে আগুন, পুড়লো সাড়ে ৭ হাজার পিচ মুরগির বাচ্চা সাভারে কাভার্ডভ্যান চাপায় প্রাণ গেল ছেলের, বাবা হাসপাতালে শেখ আবেদ আলীসহ খুলনায় ৩টি আসনে আরও ৬ প্রার্থীর মনোনয়নপত্র বাতিল, অপেক্ষামান একটি সাতক্ষীরা -১আসনে নৌকা পেয়ে স্বস্তিতে নেই মাঝি  বড়াইগ্রামে ৭০০০ কৃষক পেলো কৃষি প্রণোদনা বড়াইগ্রাম পাট চাষী প্রশিক্ষণে নেই কোন চাষী! পলাশবাড়ী কৃষি কর্মকর্তা ফাতেমা কাওসার মিশুর মাটির সুরক্ষায় পুরুস্কার লাভ ঝিনাইদহে বিপুল পরিমাণ দেশীয় অস্ত্রসহ আটক ১
সুচিকিৎসার অভাবে ভুগছেন বীর মুক্তিযোদ্ধা দবির উদ্দিন আহমেদ

সুচিকিৎসার অভাবে ভুগছেন বীর মুক্তিযোদ্ধা দবির উদ্দিন আহমেদ

লালমনিরহাট প্রতিনিধি, মোঃ ফরহাদ হোসেন:

সুচিকিৎসার অভাবে ভুগছেন বীর মুক্তিযোদ্ধা দবির উদ্দিন আহমেদ
সুচিকিৎসার অভাবে ভুগছেন রাবির সাবেক শিক্ষার্থী বীর মুক্তিযোদ্ধা দবির উদ্দিন বীর মুক্তিযোদ্ধা দবির উদ্দিন আহমেদ। 
বাংলাদেশের স্বাধীনতা সংগ্রামের একজন বীর সৈনিক রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের (রাবি) সমাজকর্ম বিভাগের সাবেক শিক্ষার্থী মুক্তিযোদ্ধা দবির উদ্দিন আহমেদ । অসুস্থ্য এই বীর সন্তান সুচিকিৎসার অভাবে শয্যাশায়ী হয়ে পড়ে আছেন।

এই মুক্তিযোদ্ধা আর্থিক অনটনে চরম ভোগান্তি নেমে এসেছে তার জীবনে। শনিবার মুক্তিযোদ্ধা দবির উদ্দীনের সাথে কথ বলে জানা যায়, ছেলে সন্তানহীন মুক্তিযোদ্ধা দবির উদ্দিন আহমেদ । বৃদ্ধ বয়সে দেখভাল করার মত পাশে নেই কেউ। রয়েছে এক মাত্র সম্বল মুক্তিযোদ্ধা ভাতা। বর্তমানে স্ত্রীসহ সংসার চালানোর জন্য চেয়ে থাকতে হয় সরকার প্রদত্ত ভাতার দিকে। তিনি জানান, দীর্ঘদিন যাবত খেয়ে না খেয়ে অসুস্থ অবস্থায় দিনযাপন করছেন। দীর্ঘদিন থেকে শারীরিক দুর্বলতায় ভুগছেন তিনি। এরই মধ্যে শরীরে বাসা বেঁধেছে নানা রোগ। বসবাসের ঘরটিরও বেহাল দশা। যে কোনও সময় ভেঙ্গে পড়তে পারে। এমন অবস্থায় তার চিকিৎসার জন্য সরকারী সহায়তা চেয়েছেন তিনি।

মুক্তিযোদ্ধা দবিরের সাথে কথা বলে জানা যায়, ঐতিহাসিক ‘১১ দফা’ আন্দোলনে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের তদানীন্তন ছাত্রলীগ নেতা নুরল ইসলাম ঠান্ডুর নের্তৃত্বে অর্পিত দায়িত্ব পালন করেন। তিনি রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় থেকে সমাজকর্ম বিষয়ে ১৯৭২ সালে দ্বিতীয় বিভাগ পেয়ে এম.এ পাস করেন।

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ডাকে ১৯৭১ সালে মুক্তিযুদ্ধকালীন ভারতের আসাম রাজ্যের হাফলং মিলিটারি ক্যান্টনমেন্টে ৪২ দিন সামরিক প্রশিক্ষণ গ্রহণ করেন। বাংলাদেশ লিবারেশন ফোর্স (বি.এল.এফ) এর একজন সক্রিয় সৈনিক হয়ে দেশের অভ্যন্তরে লালমনিরহাট জেলার হাতীবান্ধা ও কালীগঞ্জ উপজেলার যুবকদের প্রশিক্ষণ দিয়েছিলেন। এখনও মুক্তিযুদ্ধ, বঙ্গবন্ধু ও গণমুখী প্রশাসন প্রতিষ্ঠা নিয়ে একাধারে তার বক্তব্য মানুষ নজর কাড়ে

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published.




কপিরাইট © ২০২১ || দি ডেইলি আজকের আলোকিত সকাল - সর্বসত্ত্ব সংরক্ষিত