শিরোনাম :
তজুমদ্দিনে মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান প্রার্থীর উপর হামলা,আটক ৩ সাগরে তৈরি হয়েছে ঘূর্ণিঝড় রিমাল, দশ নম্বর মহাবিপদ সংকেত  নাটোর ০৪ আসনের সংসদ সদস্যের বিরুদ্ধে সাংবাদিকদের মানববন্ধন কেন্দুয়ায় দু’পক্ষের সংঘর্ষে একজনের মৃত্যু  ফরিদপুরে জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলামের ‌ ১২৫ তম  জন্মবার্ষিকী পালিত  পূর্ব তিমুরের মতো খ্রিষ্টান দেশ বানানোর চক্রান্ত চলছে এমপি আনার হত্যায় জিহাদের লোমহর্ষক বর্ণনা সাগরে তৈরি হয়েছে ঘূর্ণিঝড় রিমাল, সাত নম্বর বিপদ সংকেত  বড়াইগ্রামে সাংবাদিকদের নিয়ে এমপি’র আপত্তিকর বক্তব্য, সর্বত্র ক্ষোভ   সাতক্ষীরায় পৃথক সড়ক দূর্ঘটনায় এক কলেজ ছাত্রসহ দুই জনের মৃত্যু
স্কুলছাত্রীদের মানববন্ধনে ‘ছাত্রলীগ নেতার’ বর্বরতার ভিডিও ধারণ করায় সাংবাদিককে লাঞ্ছনা

স্কুলছাত্রীদের মানববন্ধনে ‘ছাত্রলীগ নেতার’ বর্বরতার ভিডিও ধারণ করায় সাংবাদিককে লাঞ্ছনা

মোহাম্মদ মনির,কর্ণফুলী প্রতিনিধি :

চট্টগ্রামের কর্ণফুলী উপজেলার দৌলতপুর বহুমুখী উচ্চ বিদ্যালয়ের সামনের সড়কে স্পিড ব্রেকার নির্মাণের দাবিতে শনিবার(২৫জানুয়ারি) বিকেলে মানববন্ধন কর্মসূচি পালন
করছিলেন অত্র বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা।মানববন্ধনের নিউজ সংগ্রহ করার জন্য একুশে পত্রিকার আনোয়ারা প্রতিনিধি জিন্নাত আয়ুব মানববন্ধনের ভিডিও ধারন করতেছিলেন।হাটাৎ ছাত্রলীগ নেতা রিপন বাইক থেকে নেমে মানববন্ধনে এক স্কুল শিক্ষার্থীর সাথে বর্বর আচরন করেন।বর্বর আচরনের চিত্র জিন্নাত আয়ুবের মুবাইলে রেকর্ড হলে সে মুবাইলটি হাত থেকে নিয়ে মেমোরি থেকে ভিডিওটি মুছে দেন এবং যত্রতত্র ভাষায় লাঞ্ছনা করেন। অভিযুক্ত মো. রিপন বড়উঠান ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আবদুল মান্নানের অনুসারী হিসেবে  নিজেকে ছাত্রলীগ নেতা পরিচয় দেন। 
উল্লেখ্য, গত ২০ জানুয়ারি দৌলতপুর উচ্চ বিদ্যালয় যাত্রী ছাউনীর সামনে বেপরোয়া ট্রাকের ধাক্কায় সালমা সিদ্দিকা রুপা নামে স্কুলের দশম শ্রেণীর এক ছাত্রী গুরুত্বর আহত হয়।এ ঘটনার পর দুর্ঘটনা এড়াতে দৌলতপুর বহুমুখী উচ্চ বিদ্যালয়ের সামনের সড়কে স্পিড ব্রেকার নির্মাণের দাবিতে শনিবার বিকেলে মানববন্ধন করেন শিক্ষার্থীরা।
দেখা যায়, ছাত্র-ছাত্রীরা রাস্তায় মানবন্ধন করতেছেন, কিছুক্ষণ পর পুলিশ এসে তাদেরকে নিয়ন্ত্রণে এনে সরে যেতে অনুরোধ করলে তারা সরে যায়।হাটাৎ করে দলবল নিয়ে ছাত্রলীগ নেতা রিপন ছাত্রীদের মারধর করে ও এক ছাত্রীর বুকে হাত দেয়। এ সময় মুঠোফোনে একুশে পত্রিকার আনোয়ারা প্রতিনিধি ঘটনার ভিডিওচিত্র ধারণ করতেছেন বিষয়টি টের পেয়ে রিপন মুঠোফোন কেড়ে নিয়ে সব ভিডিও ডিলেট করে দেন।
শ্লীলতাহানির শিকার ছাত্রীটি বলেন, আমাদের সহপাঠী দুর্ঘটনার শিকার হয়ে হাড় ভেড়েছে। আমরা আন্দোলন করছি, স্পিড ব্রেকার দেয়ার জন্য রিপন নামের উপজেলা ছাত্রলীগের এক নেতা এসে আমাদেরকে তিনবার মেরেছে। আমার গায়ে হাত দিয়েছে। আমার বুকের মধ্যেও হাত দিয়েছে। তার কী অধিকার আছে মেয়েদের গায়ে হাত তোলার? আমার বিচার চাই।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




কপিরাইট © ২০২১ || দি ডেইলি আজকের আলোকিত সকাল - সর্বসত্ত্ব সংরক্ষিত